দিনাজপুর সংবাদাতাঃ সদর উপজেলার নয়নপুর এলাকায় সোমবার রাতের ২:৪৫ মিনিটে মধ্য প্রহরে মাসুম বেকারী কারখানা সংলগ্ন চারকল ও গুড়ার ব্যান্ড কারখানায় আগুন লেগে যায়। আগুনের লেলিহান শিখা পাশের গুদাম ঘরে লেগে গেলে আগুনের তীব্রতা শক্তিশালী হয়ে আশেপাশের বসতবাড়ীকে ভূষিত’ত করে।

এলাকাবাসীর একজন মোঃ জাকির হোসেন বলেছেন, আগুনে তার মূল্যবান আসবাপত্রসহ টেলিভিশন, ফ্রিজ, ওভেন ও দরকারী কাগজপত্র পুড়ে ছাঁই হয়ে গেছে। যার মূল পাচঁ লক্ষ টাকা। মোঃ নাজু রহমান, মাতাঃ মোকসেদা বেগম বলেন, তাদেরও ঘরবাড়ীর আসবাপত্রসহ মালামাল ও কাপড়-চোপড় পড়ে ছাঁই হয়েছে যার আনুমানিক মূল্য তিন লক্ষ টাকা। ক্ষতিগ্রস্থরা জানান, পরিবেশের ছাড়পত্র ছাড়াই অবৈধভাবে আবাসিক এলাকায় এই ধরনের কারখানা গড়ে উঠেছে।

দিনাজপুরে চার কল ও গুড়ার ব্যান্ড কারখানাসহ বসতবাড়ীতে অগ্নিকান্ড -Dinajpur, Dinajpur news, দিনাজপুর, দিনাজপুর নিউজ, বাংলা, বাংলানিউজ bangle, banglanews, Rangpur District, Kurigram District, Panchagarh District, Nilphamari District, Gaibandha District, Thakurgaon District, Lalmonirhat District, রংপুর জেলা, কুড়িগ্রাম জেলা, পঞ্চগড় জেলা, নীলফামারী জেলা, গাইবান্ধা জেলা, ঠাকুরগাঁও জেলা, লালমনিরহাট জেলা Bangladesh, বাংলাদেশ I+বিগত সময়ে এখানে প্রায় তিন থেকে চার বার এই কারখানা থেকে আগুন লেগেছিল। এলাকাবাসী বলছে, ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা আগেও এখান থেকে এই ধরনের কল কারখানা অনত্র নিয়ে যাওয়ার জন্য বলেছে।

দিনাজপুর সদর ফায়ার সার্ভিসের ফায়ার ম্যান সিরাজুল ইসলাম জানান, আগুনরে সুত্রপাত ঘটে বৈদ্যুতিক শটসার্কিটের মাধ্যমে। ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালকসহ বেশ কয়েকজন ফায়ার ম্যান ও দুইটি ফায়ার নিবারনকারী গাড়ী আগুন নেভানোর কাজে অংশগ্রহন করেন। আরও জানান কারখানা গুলো ফায়ার সার্ভিসের ও পরিবেশের ছাড়পত্র নেই। কল-কারখানা গুলি ভাড়ায় চালিত।

কারখানার ইজারাদার কে পাওয়া যায় নি। পরে উপজেলার নির্বাহী অফিসার মাগফুরুল হাসান আব্বাসী ও চেয়ারম্যান মোঃ ইমদাদ সরকার আগুনের ক্ষয়ক্ষতি জায়গা পরিদর্শন করেছেন এবং ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি সহানুভুতি জানান। আশ্বাস দেন, আবাসিক এলাকা থেকে অবৈধ কারখার ব্যবস্থা করবেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য