আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধাঃ মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশ ও ভারতীয় শিল্পীদের ‘সমপ্রীতির সুষমা’ যৌথ শিল্পকর্ম প্রদর্শনী ও শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা শনিবার গাইবান্ধা পাবলিক লাইব্রেরী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা বেগম গিনি এমপি এই চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন। ঢাকাস্থ চারু শিল্পীদের সংগঠন চিত্রকল্প নামে সংগঠনটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এসকেএস ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় ৭ থেকে ১৭ মার্চ পর্যন- ১১ দিনব্যাপী এই চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করে।

বাংলাদেশের প্রখ্যাত চিত্র শিল্পী শাহ মাইনুল ইসলাম শিল্পুর সভাপতিত্বে এ উপলক্ষে আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা বেগম গিনি এমপি, জেলা প্রশাসক মো. আবদুল মতিন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আতাউর রহমান সরকার আতা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মইনুল হক, পৌর মেয়র অ্যাড. শাহ মাসুদ জাহাংগীর কবির মিলন, এসকেএস ফাউন্ডেশনের নির্বাহী প্রধান রাসেল আহমেদ লিটন এবং ভারতের কুচবিহারের দিনহাটার উত্তর বাংলা চারুকলা সোসাইটির সেক্রেটারী রতীন্দ্র নাথ সাহা ও চিত্রকল্পের আহবায়ক মেহেদী হাসান। অনুষ্ঠানটি উপস’াপনা করেন শিরিন আকতার।

ভারতের ৮ জন ও বাংলাদেশের ১২ জন শিল্পীর চিত্র প্রদর্শনীতে প্রদর্শিত হচ্ছে। প্রদর্শনীতে ভারতীয় শিল্পী রতীন্দ্র নাথ সাহা, বিপদভঞ্জন সিকদার, বিমল দে সরকার, তরুণ কুমার মিত্র, মনতোষ বসাক, উত্তম বর্মন, জীবন বর্মন, অনুকুল বর্মন এবং বাংলাদেশের শিল্য্পী ইসতিয়াক তালুকদার সানি, আলাউদ্দীন আহমেদ, শাহ মাইনুল ইসলাম শিল্পু, সাইফুল ইসলাম চৌধুরী ইমরুল, আব্দুল মতিন, শিশির মল্লিক, উম্মে হাবিবা সুমি, মেহেদী হাসান, সাঈম মুনীর, সন্দীপ কুমার দেবনাথ, মাহিন মাহনুমা পালোমা ও বাসুদেব সাহার জলরং, তেল রং, এ্যাক্রিলিক, মিশ্র, কাগজ মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি, স্বাধীনতা যুদ্ধ, প্রকৃতি পরিবেশ নিয়ে আঁকা চিত্র প্রদর্শিত হয়।

উল্লেখ্য, সন্ধ্যায় পাবলিক লাইব্রেরী চত্বরে শিশু শিল্পীদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয় এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ভারতের অন্যতম বংশী বাদক এবং চিত্র শিল্পী বিমল কুমার দে বাঁশি বাজানোসহ গাইবান্ধার অন্যতম বাচ্যিক শিল্পী দেবাশিষ দাশ দেবু ও তার দল অভিনন্দন আবৃত্তি চর্চা কেন্দ্রের শিশু শিল্পীরা কবিতা আবৃত্তি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য