আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধাঃ সুস্থ-সুন্দর শান্তি ও মর্যাদাপূর্ণ সমাজ বিনির্মানের লক্ষ্য নিয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষে মাদকমুক্ত পরিবার ও সমাজ গঠন এবং মাদকাসক্ত ব্যক্তিদের কর্মসংস্থান ও পুনর্বাসনের লক্ষ্যে গাইবান্ধায় জিইউকে মাদকাসক্তি নিরাময় ও পুনর্বাসন কেন্দ্র আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। জেলা শহরের ভিএইড রোডের কালিবাড়িপাড়ায় বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা বেগম গিনি এমপি গাইবান্ধায় এই প্রথম মাদক নিরাময় কেন্দ্রের উদ্বোধন করেন। গাইবান্ধার অন্যতম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন গণ উন্নয়ন কেন্দ্র তাদের নিজস্ব অর্থায়নে এই মাদকাসক্তি নিরাময় ও পুনর্বাসন নিরাময় ও পুনর্বাসন কেন্দ্রটি প্রতিষ্ঠা করেন।

এ উপলক্ষে ভিএইড রোড কালিবাড়ি মন্দির চত্বরে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। গণ উন্নয়ন কেন্দ্রের নির্বাহী প্রধান এম. আবদুস সালামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা বেগম গিনি এমপি এবং অতিথি হিসেবে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মো. আবদুল মতিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ময়নুল হক, সিভিল সার্জন ডাঃ এবিএম আবু হানিফ, পৌর মেয়র অ্যাড. শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবীর মিলন।

এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রসূন কুমার চক্রবর্ত্তী, সমাজসেবা বিভাগের উপ-পরিচালক এমদাদুল হক প্রামানিক, চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাষ্ট্রিজ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মাকছুদার রহমান শাহান, গাইবান্ধা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর সাবু, রণজিৎ বকসী সূর্য্য, মাদক নিরাময় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ শাহরিয়ার ফারুক, মাদক নিয়ন্ত্রক অধিদপ্তরের পরিদর্শক আনোয়ারুল হাবিব, আব্দুর রউফ প্রমুখ।

আলোচনাকালে প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, মাদক মুক্ত সমাজ গড়তে প্রতিটি পরিবারের পিতা-মাতার উচিত তাদের সন-ানদের জীবনাচরণের প্রতি লক্ষ্য রাখা। তিনি বলেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে আমাদের লক্ষ্য হওয়া উচিত দেশ জাতি সমাজ ও পরিবারের কল্যাণে একটি ভালো কাজ করবো এই চেতনাকে জাগ্রত করা।

সেজন্য এই চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে মুজিববর্ষে মাদক মুক্ত সমাজ গড়ার লক্ষ্যে মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্র গড়ে তোলার জন্য তিনি গণ উন্নয়ন কেন্দ্রকে ধন্যবাদ জানান। তিনি উল্লেখ করেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সরকারের মাদকের প্রতি জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছেন। সুতরাং মাদকের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহবান জানান তিনি।

আলোচনা শেষে ফিতা কেটে কালিমন্দির সম্মুখস’ ১০ শয্যা বিশিষ্ট মাদক নিরাময় কেন্দ্রের অস’ায়ী চিকিৎসা কেন্দ্রটির উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, গণ উন্নয়ন কেন্দ্র এক্ষেত্রে বৃহৎ পরিসরে অধিকতর সেবা প্রদানের লক্ষ্যে গাইবান্ধা সদর উপজেলার উত্তর গিদারী ইউনিয়নে সংস’ার নিজস্ব ২ একর জায়গায় অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধাসহ ৫০ শয্যাবিশিষ্ট কমপ্লেক্স গড়ে তুলে সেখানে মাদকাসক্তদের চিকিৎসার পাশাপাশি কর্মসংস’ান ও পুনর্বাসনের ব্যবস’া থাকবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য