দিনাজপুর সংবাদাতাঃ মিথ্যা,মানহানীকর ও বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে এইচএসটিইউ হট নিউজ (HSTU Hot News) পেজের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেছে দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে দিনাজপুর কোতয়ালী থানার তদন্ত কর্মকর্তা বজলুর রশিদ বলেন, আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে থেকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা পেয়েছি। মামলাটি সিআইডিতে পাঠানো হয়েছে। আশা করছি অল্প কিছুদিনের মধ্যে আমরা দুষ্কৃতিকারীদের সনাক্ত করতে সক্ষম হবো।

মামলার বিষয়ে অধ্যাপক ড.মো.খালেদ হোসেন জানান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপমান,অপদস্থ ও সম্মানহানী করার অভিপ্রায়ে এইচএসটিইউ হট নিউজ(HSTU Hot News) নামের ফেসবুক পেজটি এবং তার সহযোগীরা পরিচয় গোপন করে বিভিন্ন সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানীয় ব্যক্তিবর্গের নামে অপমান ও আপত্তিজনক তথ্যের মাধ্যমে মিথ্যাচার করে আসছে। অপরাধীদের সনাক্ত করতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮ এর ২৫/২৯/৩১ ধারায় ঐ পেজসহ অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামী করে মামলা রুজু করা হয়েছে। সিআইডি বিভাগে এখন মামলাটি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আশা করছি দ্রুত আমরা এর একটি সমাধান পাবো।

প্রশাসনিক দায়িত্বে থাকা অনেকে মনে করছেন, যারা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ সুষ্ঠ ও সুন্দর থাকুক তা চায় না, মূলত তারাই এইসব মিথ্যা প্রোপ্রাগান্ডা ছড়িয়ে বেড়াচ্ছে। সত্যিকার অর্থে ঐ সব ব্যক্তিবর্গ কখনো সত্যের মুখোমুখি হতে চায় না। বিধায়,সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজেদের পরিচয় গোপন রেখে ক্যাম্পাসে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির পায়তারা চালাচ্ছে। এসব ষড়যন্ত্রকারী ও ক্যাম্পাসের ভাবমূর্তি ক্ষুন্নকারীদের বিচার চেয়ে এর আগে সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীরা একটি মানববন্ধনও করেছিল। তথাপি কুচক্রী ঐ মহলটি সতর্ক হয়নি। ফলে প্রশাসন আইসিটি আইনে মামলা করতে বাধ্য হয়েছে। আশা করছি খুব শীঘ্রই অপরাধীদের মুখোশ সবার সামনে আসবে। পাশাপাশি যেসব ফেসবুক গ্রুপের মাধ্যমে মিথ্যা বা বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়িয়ে ক্যাম্পাসের পরিবেশ খারাপ করার চেষ্টা করা হচ্ছে সেসব গ্রুপের এডমিনদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে,অজ্ঞাতনামা এইচএসটিইউ হট নিউজ (HSTU Hot News) ফেসবুক নামীয় আইডি এবং তার সহযোগীগণ ছদ্মবেশে পরস্পরের সহায়তায় ইচ্ছাকৃত ও পরিকল্পিতভাবে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী,কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের দায়িত্বরত ব্যক্তিদের মধ্যে শত্রুতা,রাজনৈতিক বিদ্বেষ ছড়াইয়া জনমনে বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টির লক্ষ্যে সম্মানিত উপাচার্য,রেজিস্ট্রার,প্রক্টর সহ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের গুরুত্বপূর্ন ব্যক্তিবর্গ ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গের নামে মিথ্যা ও মানহানীকর তথ্য এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার লক্ষ্যে এইচএসটিইউ হট নিউজ (HSTU Hot News) ও তার সহযোগীরা মিথ্যা বিভ্রান্তিকর তথ্য পরিবেশন করে আসছে। এর সাথে জড়িত সকলকে গ্রেফতারপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য