প্রাথমিক সহকারী শিক্ষার মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী সবাইকে প্যানেলের মাধ্যমে নিয়োগের জন্য দিনাজপুরে মানববন্ধন ও স্বারকলিপি দিয়েছে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ-২০১৮ প্যানেল বাস্তবায়ন জেলা কমিটি দিনাজপুর।

সোমবার দিনাজপুর প্রেসক্লাব সম্মুখ সড়কে “বাংলাদেশ এগিয়ে যাক-বেকারত্ব মুক্তি পাক” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষনা মুজিববর্ষে কেউ বেকার থাকবে না শীর্ষক প্রাথমিক সহকারী শিক্ষার মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী সবাইকে প্যানেলের মাধ্যমে নিয়োগের জন্য মানববন্ধন করেন তারা। মানববন্ধন শেষে দিনাজপুর জেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন।

মানববন্ধনে বলেন, ৩৭ হাজার চাকুরী প্রার্থীকে প্যানেলের মাধ্যমে নিয়োগ দিলেই প্রধানমন্ত্রী মমতাময়ী মায়ের সেই প্রতিশ্রুতি অনেকাংশে বাস্তবায়িত হবে বলে আমরা মনে করি। কারণ দেশের ৬১টি জেলার সব উপজেলার যোগ্য প্রার্থীরা লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। আবার আমাদের দেশ স্বাধীন হওয়ার পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রাথমিক শিক্ষাকে শিক্ষার মূল ভিত্তি মনে করে ১৯৭৩ সালে প্রায় ৩৭ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ করেছিলেন, যা ছিলো শিক্ষিত জাঁতি ও দেশ গঠনের এক যুগান্তকারী পদক্ষেপ। মুজিববর্ষের উপহার স্বরূপ মৌলিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী সবার জন্য প্যানেলের মাধ্যমে শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ এর দাবী আমাদের।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, প্যানেল বাস্তবায়ন কমিটির দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি শাহাদৎ হোসেন, সহ-সভাপতি করীরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক রাসেন মাহমুদ।

এসময় ১৩টি উপজেলার পরিক্ষার্থীরা মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য