শরীরের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি খনিজ। শক্ত দাঁত ও হাড় পেতে এবং হৃদযন্ত্র, স্নায়ু, রক্ত সঞ্চালনের স্বাভাবিক প্রক্রিয়া বজায় রাখতে চাই পর্যাপ্ত পরিমাণ ক্যালসিয়াম।

খাবার থেকে ক্যালসিয়াম গ্রহণের পাশাপাশি সাপ্লিমেন্টও গ্রহণ করেন অনেকে। তবে এক্ষেত্রে কিছু নিয়ম মানতে হবে।

কফির সঙ্গে ক্যালসিয়াম নয়: শরীরে ক্যালসিয়াম শোষণের ক্ষমতা কমিয়ে দিতে পারে ক্যাফেইন। যা থেকে হতে পারে অস্টিওপোরোসিস। চকলেট ও পালংশাকে থাকা ‘অক্সালেট’, কলিজা ও কিশমিশে থাকা লৌহ এবং শষ্যজাতীয় খাবারে থাকা ‘ফাইটাটস’ ইত্যাদিও শরীরের ক্যালসিয়াম শোষণ ক্ষমতা কমায়।

ভিটামিন ট্যাবলেটের সঙ্গে নয়: মাল্টি ভিটামিন ট্যাবলেটের সঙ্গে ক্যালসিয়াম সাপ্লিমেন্ট খেলে তা ভিটামিন ট্যাবলেটে থাকা লৌহ শোষণে ব্যহত হতে পারে। তাই দুটিকে আলাদা সময়ে খাওয়া ভালো।

স্বাস্থ্য পরীক্ষার আগে ক্যালসিয়াম নয়: স্বাস্থ্যগত কিছু পরীক্ষা যেমন কোলেস্টেরল পরীক্ষার ফলাফলের সঙ্গে ক্যালসিয়াম সাপ্লিমেন্টের দা-কুমড়া সম্পর্ক রয়েছে। সাপ্লিমেন্টের প্রভাবে পরীক্ষার ভুল ফল আসতে পারে।

কিছু মারাত্বক ক্যালসিয়াম সাপ্লিমেন্টের কারণে কোষ্ঠকাঠিন্য, বদহজম ইত্যাদি পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া দেখা যায়। সাপ্লিমেন্ট গ্রহণের আগে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া জরুরি। কারণ কিছু ওষুধের সঙ্গে বিক্রিয়া করে ক্যালসিয়াম সাপ্লিমেন্ট।

ধূমপান ও মদ্যপানের কারণে অস্টিওপোরোসিসের পাশাপাশি শরীরের ক্যালসিয়াম গ্রহণের ক্ষমতা কমে। তাই বদভ্যাস ত্যাগ করুন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য