সংক্রামক রোগজনিত সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করার একদিন পর দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৭৬৩ জনে দাঁড়িয়েছে।

রোববার নতুন করে আরও ১৬১ জন ভাইরাসটির সংক্রমণের শিকার হয়েছেন, দেশটির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের সোমবারে দেওয়া তথ্যের বরাতে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

দক্ষিণ কোরিয়ার রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের (কেসিডিসি) তথ্যানুযায়ী, নতুন করে আক্রান্তদের মধ্যে ১১৫ জন দক্ষিণপূর্বাঞ্চলীয় শহর দায়েগুর একটি গির্জা থেকে আক্রান্ত হয়েছেন, সেখানে ’রোগী ৩১’ নামে পরিচিত ৬১ বছর বয়সী এক নারী প্রার্থনায় যোগ দিয়েছিলেন পরে যার শরীরে ভাইরাসটির অস্তিত্ব ধরা পড়ে।

করোনাভাইরাস জনিত রোগ কভিড-১৯ এ দেশটির চেওংদো একটি হাসপাতালে ৬২ বছর বয়সী আরেক পুরুষ রোগীর মৃত্যু হয়েছে বলে কেসিডিসি জানিয়েছে। এ নিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার কভিড-১৯ এ সাত জনের মৃত্যু হলো।

দেশটিতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রধানত চেওংদো কাউন্টি ও নিকটবর্তী দায়েগু শহরেই ছড়িয়েছে। এই দুটি এলাকাকে ‘স্পেশাল কেয়ার জোন’ ঘোষণা করা হয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন করে প্রাদুর্ভাব কীভাবে ছড়িয়েছে তার প্রকৃত কারণ বের করার চেষ্টা করছে কর্তৃপক্ষগুলো, কারণ ‘রোগী ৩১’ এর সাম্প্রতিক বিদেশ ভ্রমণের কোনো রেকর্ড নেই।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য