আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় প্রায় এক মাস ধরে ক্যাথেটার পরা অবস্থায় এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে আশিক বাবু। সে উপজেলার টংভাঙ্গা গ্রামের ওমর আলীর ছেলে। এবার সে হাতীবান্ধা এসএস উচ্চ বিদ্যালয় ও টেকনিক্যাল কলেজের কারিগরি শাখা থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে।

জানা গেছে, সড়ক দুর্ঘটনার কবলে পড়ে গুরুতর আহত হয় বাবু। এরপর রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়। চিকিৎসক বলেছেন দুর্ঘটনার কারণে মূত্রনালীতে ও কিডনিতে আঘাত পেয়েছেন আশিক বাবু। দ্রুত অপারেশন করাতে হবে নতুবা মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে পড়তে হবে তাকে। আর এর জন্য প্রয়োজন এক লাখ টাকা।
শনিবার পরীক্ষাকেন্দ্রে গিয়ে দেখা য়ায়, আশিক আবেদনের ভিত্তিতে বিশেষ সুবিধায় একাই এক কক্ষে পরীক্ষা দিচ্ছে। কখনো বেঞ্চে শুয়ে আবার কখনো বসে পা লম্বা করে খাতায় লিখছে সে।

পরীক্ষা শেষে আশিক বাবুর সাথে কথা হলে সে জানায়, দুর্ঘটনার কারণে আমি মূত্রনালীতে ও কিডনিতে আঘাত পেয়েছি। কাটা স্থানে ১৫টি সেলাই দেওয়া হয়েছে। দ্রুত অপারেশন করাতে হবে। এর জন্য এক লাখ টাকা প্রয়োজন। আমার বাবা একজন দিনমজুর। তাই টাকার অভাবে অপারেশন করাতে পারিনি। কিন্তু স্বপ্নতো পূরণ করতে হবে, বসে থাকলেতো চলবে না। তাই ঝুঁকি আছে জেনেও পরীক্ষা দিচ্ছি। আমি বাঁচতে চাই। আমার স্বপ্ন পূরণ করতে চাই।

হাতীবান্ধা এসএস সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রেজাউল করিম জুয়েল প্রধান জানান, আশিক বাবু অসুস্থ তার চিকিৎসার জন্য অর্থের প্রয়োজন। সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানাচ্ছি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য