ভারতের বেঙ্গালুরুতে ভারতীয় নাগরিকত্ব আইন বিরোধী একটি সমাবেশে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান দেয়ার জন্য অমূল্য লিওনা নামে এক ছাত্রকর্মীর মাথার দাম ১০ লাখ রুপি ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল শনিবার শ্রীরাম সেনার পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেয়া হয়।

শ্রীরাম সেনার নেতা সঞ্জিব মারাদি বলেন , অমূল্যকে হত্যা করতে পারলে হত্যাকারীকে ১০ লাখ রুপি দেয়া হবে।

যদিও তরুণীর বাবার দাবি, তার মেয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ভক্ত। তবে স্টেজে উঠে কেন ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান দিতে গেল সেটি তিনি জানেন না।

ভারতের সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুড জানিয়েছে, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) এর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশ চলার সময় দক্ষিণ বেঙ্গালুরু কলেজের ওই ছাত্রী তার বক্তব্যের অংশ হিসেবে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান দিয়েছিলেন। এ ঘটনায় ইতিমধ্যেই রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় অমূল্য লিওনাকে ১৪ দিনের বিচারিক হেফাজতে পাঠানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার বেঙ্গালুরুতে সিএএ বিরোধী সভার শেষে আমিম নেতা আসাদউদ্দিন ওবেইসি যখন মঞ্চ ছাড়ছেন, তখন ওঠে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান। সঙ্গে সঙ্গে অজ্ঞাত পরিচয় ওই তরুণীকে বাধা দেন মঞ্চে হাজির নেতারা।

মঞ্চ থেকে নামতে গিয়েও ফিরে এসে তরুণীকে এই কাজ করতে নিষেধ করেন ওবেইসি। কিন্তু কারও কথায় কর্ণপাত করেননি তিনি। কয়েকবার ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ বলার পর ‘হিন্দুস্তান জিন্দাবাদ’ বলতে শুরু করেন তিনি। তখন তাকে বলপূর্বক আটক করেন পুলিশ কর্মকর্তারা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য