সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইদলিব প্রদেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার জন্য তুরস্ক এবং রাশিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের সিরিয়া বিষয়ক বিশেষ প্রতিনিধিদ জেইর পেডারসেন।

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে দেয়া ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, ইদলিবে যুদ্ধ পরিস্থিতি কমানোর ব্যাপারে রাশিয়া ও তুরস্ক ভূমিকা রেখেছিল এবং তারাই এখন সেখানকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার জন্য ভূমিকা রাখতে পারে। জাতিসংঘের এ দূত বলেন, “সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশের চলমান সহিংসতার অবসান হয়েছে সে কথা আমি এখনো পর্যন্ত বলতে পারছি না।”

পেডারসেন বলেন, রাশিয়া ও তুরস্কের প্রতিনিধিদল সম্প্রতি আলোচনা করেছে এবং দু দেশের প্রেসিডেন্টের মধ্যে যোগাযোগ হয়েছে কিন্তু এখনো পরিস্থিতির তেমন কোনো উন্নতি হয়নি। এর বিপরীতে সিরিয়া ও আন্তর্জাতিক অন্যান্য পক্ষ থেকে যে সমস্ত বক্তব্য-বিবৃতি পাওয়া যাচ্ছে তাতে পরিস্থিতি খুবই বিপজ্জনক এবং যেকোনো মূহুর্তে সংঘর্ষ শুরু হতে পারে।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান গতকাল হুমকি দিয়েছেন যে, তুরস্ক সীমান্তবর্তী সিরিয়ার অভ্যন্তরে তুর্কি সেনা অবস্থানের আশপাশ থেকে সিরিয়ার সেনা প্রত্যাহার না করা হলে যেকোনো মুহূর্তে তুর্কি সামরিক বাহিনী অভিযান শুরু করবে। এর পরপরই পেডারসেন জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে ব্রিফিং দেন। এরদোগানের এই হুমকির জবাবে রাশিয়া বলেছে, তুরস্ক যদি সিরিয়ার বৈধ সরকারের সামরিক বাহিনীর ওপর হামলা চালায় তাহলে তা হবে খুবই খারাপ একটি দৃশ্যপট।

পার্সটুডে

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য