দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই ডাকাত নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন পুলিশের চার সদস্য।

বৃহস্পতিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) ভোর ৪টার দিকে উপজেলার শালখুড়িয়া ইউনিয়নের ছোট মাগুরা গ্রামে এ ‘বন্দুকযুদ্ধ’ হয়।

নিহত দুই ডাকাত হলেন- গাইবান্ধা জেলার সাদুল্যাপুর থানার মোহাম্মদ আলীর ছেলে রফিকুল ইসলাম (২৮) ও ঘোড়াঘাট উপজেলার রামকৃষ্ণপুর গ্রামের হামিদ আলীর ছেলে ওয়াজেদ আলী (৩০)।

আহত চার পুলিশ সদস্যরা হলেন- নবাবগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শামসুল ইসলাম, উপ-পরিদর্শক (এসআই) রিমেল মানিক, কনস্টেবল তুষার ও কাদের।

নবাবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অশোক কুমার চৌহান জানান, মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) অভিযান চালিয়ে রফিকুল ও ওয়াজেদকে আটক করে পুলিশ। পরে বৃহস্পতিবার ভোরে তাদের নিয়ে ছোট মাগুরা গ্রামে অভিযানে যায় পুলিশ। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতদের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এক পর্যায়ে ডাকাতরা পিছু হটলে ঘটনাস্থল থেকে আটক রফিকুল ও ওয়াজেদের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ সময় ডাকাতদের ছোড়া গুলিতে পুলিশের চার সদস্য আহত হন। তাদের পুলিশের নিজস্ব হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, নিহত দুই ডাকাতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নবাবগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য