প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়লে ব্রিটেনে প্রায় ৪ লাখ মানুষের মৃত্যু হতে পারে। এছাড়াও এই ভাইরাসে আরো কয়েক মিলিয়ন মানুষ আক্রান্ত হতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছে দেশটির বিশেষজ্ঞরা। আর এমনটি হলে ব্রিটেনের জাতীয় স্বাস্থ্য সংস্থা চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এই বিষয়ে ইমপেরিয়াল কলেজ লন্ডনের জনস্বাস্থ্য বিভাগের প্রফেসর নেইল ফারগুসোন বলেন, আমরা যেটা জানিনা সেটা হলো সবাই যদি আক্রান্ত হয় তাহলে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কত মানুষ মারা যাবে। কি অনুপাতে মারা যাবে এবং এর ঝুঁকি কি? আমাদের করা হিসাব অনুযায়ী যারা আক্রান্ত হবেন তাদের মধ্যে ১ শতাংশ মারা যাবেন। আর ১ শতাংশ মারা গেলে এর সংখ্যা দাঁড়াবে প্রায় ৪ লাখ।আমি এমনটি বলতে পারি না যে এমটি হলে আমরা হিমশিম খাবো না।

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চীনে মৃতের সংখ্যা দেড় হাজার ছাড়িয়েছে। এ দিকে চীনের মূল ভূখণ্ডের বাইরে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হংকং, ফিলিপাইন এবং জাপানে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া শুক্রবার মিশরে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। আফ্রিকার দেশগুলোর মধ্যে এটি প্রথম করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্তের ঘটনা। বিশ্বের প্রায় ২৭টি দেশে প্রায় ৬৭ হাজার করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে।

গত ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে করোনাভাইরাসের আবির্ভাব ঘটে। প্রতিনিয়ত এই ভাইরাসে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের শরীরে প্রাথমিক লক্ষণ হিসেবে শ্বাসকষ্ট, জ্বর, সর্দি, কাশির মত সমস্যা দেখা দেয়। দ্য ডেইলি স্টার।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য