দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের বীরগঞ্জের ১টি পৌরসভা ও ১১টি ইউনিয়নের হাট-বাজারে ওষুধ ফার্মেসী,হোমিও ওষুধের দোকান, পানের দোকান ও বিভিন্ন দোকানে প্রকাশ্যে বিক্রি হচ্ছে যৌন উত্তেজক ওষুধ।

বিশেষ করে বীরগঞ্জ পৌরশহরে বিজয় চত্বরের আশপাশে, বলাকা মোড়, তাজ মহল মোড়, খানসামা রোড এবং উপজেলা বিভিন্ন হাটবাজারে তরুণ – যুবক ও বৃদ্ধাসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার নারী-পুুরুষ এসব সিরাপ ও ট্যাবলেটের দিকে ঝুঁকছে।

আর এসব সিরাপ ট্যাবলেট খাওয়ার কুপ্রভাবে উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে যৌনাচার, ব্যভিচার, ধর্ষণ আশঙ্কাজনক ভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। যাহার কারণে প্রতিনিয়তই যৌনাচার, ধর্ষণ খুন খারাপি ইত্যাদি ঘটনা ঘটছে।

সরেজমিনে জানা গেছে,সম্প্রতি দেশীয় ও পার্শ্ববর্তী দেশগুলো থেকে আসা বিভিন্ন অখ্যাত কোম্পানির সরবরাহকৃত এসব যৌন উত্তেজক সিরাপ ও ট্যাবলেট বীরগঞ্জ উপজেলার হাট- বাজার সয়লাব হয়ে গেছে। উপজেলা প্রশাসন ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের পক্ষ থেকে কোন প্রকার নজরদারি না থাকায় নেতিবাচক কোন প্রভাব পরছে না।

উপজেলার শিবরামপুর,পলাশবাড়ী,শতগ্রাম,পাল্টাপুর,সুজালপুর,নিজপাড়া,মোহাম্মদপুর, ভোগনগর, সাতোর, মোহনপুর, মরিচাসহ ওই সব ইউনিয়নের হাট-বাজারগুলোতে যৌন উত্তেজক এসব সিরাপ ও ট্যাবলেট খাওয়ার ফলে যৌন অপরাধের প্রবণতা বৃদ্ধির পাশাপাশি জনস্বাস্থ্যের মারাত্মক বিপর্যয় ঘটতে পারে বলে চিকিৎসকরা আশঙ্কা প্রকাশ করছেন।

জরুরি ভিত্তিতে ব্যবস্থা গ্রহণ না করা হলে এর প্রবণতা আরও বৃদ্ধি পাবে বলে সচেতন মহল আশঙ্কা করছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য