দিনাজপুর সংবাদাতাঃ বাঙ্গালীর বারো মাসে ১৩ পার্বন। প্রতিটি ঋতু স্ব-মহিমায় আমাদের বাঙ্গালি সংস্কৃতির সাথে জড়িয় আছে ওতপ্রোত ভাবে। আর এই শীত ঋতু সাথে পিঠা-পায়েস-পুলি-নাড়ুর কথা সামনে এসে পড়ে। নগর জীবনের প্রভাবে আজ আমরা ভুলতে বসেছি গ্রামীণ এই ঐতিহ্যকে। আর আমাদের এই অতীত ঐতিহ্য কে স্মরণ করিয়ে দিতে দিনাজপুর জেলা প্রশাসন আয়োজন করেছে পিঠা উৎসব ১৪২৬।

দিনাজপুর গোর-এ-শহীদ বড় ময়দানে আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় মেলার শুভ উদ্বোধন করেন দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক মো: মাহমুদুল আলম। এসময় তিনি বলেন আমাদের সন্তানেরা আধুনিকতার নামে ফাষ্টফুডে অভ্যস্ত হয়ে পড়ছে। অথচ বাড়িতে তৈরী এসব পিঠা একদিকে যেমন সাশ্রয়ী, অন্যদিকে স্বাস্থ্যসম্মত। আমাদের আগামী প্রজন্মের কাছে ঐতিহ্যকে তুলে ধারার এই প্রয়াশ অব্যাহত থাকবে।

এই পিঠা মেলায় দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রায় ৪০টি ষ্টল অংশগ্রহন করছে। মেলায় শোভা পাচ্ছে দিনাজপুর জেলার ঐতিহ্যবাহী সব পিঠা। এর মধ্যে রয়েছে পুয়া পিঠা, নারিকেল পুলি, পাকোয়ান পিঠা, দুধ চিতই ও নুনিয়া পিঠা সহ হরেক রকমের পিঠা। আজ সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে এই পিঠা উৎসব।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর লেডিস ক্লাবের সভানেত্রী ফারজানা সুলতানা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো: সানিউল ফেরদৌস, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আবু সালেহ মো: মাহফুজুল আলম প্রমূখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য