দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর উপশহরে সরকারি নির্ধারিত শিশু পার্ক রক্ষার দাবিতে এলাকার শিশু ও এলাকাবাসী মঙ্গলবার ওই খেলার মাঠ প্রাঙ্গনে মানববন্ধন পালন করে।

উক্ত এলাকয় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে একটি হ্যান্ডবিল প্রদান করা হয় সেখানে উল্লেখ থাকে যে, নর্থ বেঙ্গল হাইওয়ে সড়ক নির্মানের জন্য নিন্ম তফসিল বর্ণিত ভূমি এল, এ ডিক্লারেশন নং ৪৩৫২ এল, এ তারিখ ২৮এপ্রিল ১৯৪১ ইং যথারিতি রিকুইজিশান করতঃ তৎকালিন জেলা প্রশাসকের পক্ষে সার্ভেয়ার এল, এ ডিপার্টমেন্ট ওই জমির দখল ০২/০৩/১৯৪১ ইং তারিখে সিএন্ড বি ডিপার্টমেন্ট এর সহকারী প্রকৌশলীর বরাবর হস্তান্তর করেন।

পারবর্তীতে এল,এ কেস নং ৬৪২৯ এল,এ তাং ৩১/০৪/১৯৪৪ ইং তালিখে তৎকালীন সরকার ওই ভূমি স্থায়ী ভাবে হুকুম দখল(একুইজিশান)করেন। যাহা বিগত ০১/০৫/১৯৪১ ইং তারিখে ১০৮১-৮২ নং পৃষ্ঠায় পার্ট-১, এবং ০৬/০৪/১৯৪৪ ইং তারিখ পৃষ্ঠা নং ৩৭৩, পার্ট-১ মোতাবেক কলিকাতা গেজেট নটিফিকেশন প্রকাশিত হয়েছে।

পরবর্তীতে ১৯৬১ ইং সালে তৎকালীন সরকার দিনাজপুর হাউজিং ষ্টেট নির্মাণের জন্য উল্লিখিত তফসীলে বর্ণিত দাগ সমুহের অবশিষ্ট সমুদয় জমি(একুইজিশান) করেন যাহা ঢাকা গেজেট DA-1 No-51 of 1966. 22 Dec 1966 Page No-1439,1440 মোতাবেক ঢাকা গেজেট এ প্রকাশিত হয়।

সেহেতু নিঃসন্দেহে উল্লিখিত দাগ সমূহের সমূদয় জমি সরকারের সম্পত্তি। উল্লেখ থাকে যে, সরকারের প্রয়োজনে কোন জমি/ভূমি একবার স্থায়ী ভাবে হুকুম দখল(একুইজিশান) করলে পুনরায় ওই জমি/ভূমি হুকুম দখল (একুইজিশান) এর প্রয়োজন হয় না।

উক্ত মাঠটিতে একটি ঈদগাহ মিনার এবং শিশুদের জন্য সরকারি ভাবে বরাদ্দকৃত বিভিন্ন খেলার সরঞ্জাম রয়েছে। প্রতিদিন প্রায় শতাধিক শিশুরা ওই খেলার মাঠে খেলা ধুলা করে থাকে। এখন শিশুদের খেলার মাঠটিতে শিশুরা যেন খেলতে পারে তাই তাদের মাঠ রক্ষা করার দাবীতে অভিভাবকদের নিয়ে খেলাধুলা ছেড়ে আন্দলনের যোগ দিয়ে রাস্তায় নেমে পড়েছে। ওই মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন।

এলাকার কাউন্সিলর এবং পৌর প্যানেল মেয়র মোঃ আবু তৈয়ব আলী দুলাল, ডাঃ নজিবর রহমান, মোঃ এমদাদুল হক, মোঃ ফেরদৌস, মোঃ সালাউদ্দিন, মোঃ আবেদুর রহমান বিরাজ, শেখ মনোয়ার হোসেন, মোঃ কবির হোসেন (আচ্চু), মোঃ রেজাউর রহমান, মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন, আইরিন পারভীন, মোসাঃ রোজিনা হোসেন, মিসেস শরিফা বেগম, রেহানা পারভীন সহ এলাকার বিপুল সংখ্যাক নারী পুরুষ এবং শিশুরা মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য