দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর ফুলবাড়ীতে বহুদিনের জমির সীমানা নির্ধারন নিয়ে জঠিলতা নিরসণের নিজেই উপস্থিত থেকে মাপযোগ দিয়ে সমাধান টানলেন প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রনালয়ের স্থায়ী কমিটির সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা এ্যাড.মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি।

সুজাপুর ৭ গম্বুজ মসজিদের সীমানা প্রাচীর নির্মান,সুজাপুরের ভিতরে পৌর ড্রেন নির্মান,পার্বতীপুর সরকারী কলেজের প্রভাষক প্রতাব সরকারের সুজাপুরের বাড়ী নির্মান,ফুলবাড়ী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবুল হোসেনের জায়গার সীমানা নির্ধারণ,জেল নং ৪৮ মৌজা সুজাপুরের মাঠ জরিপ বন্ধসহ চাচাতো ভাইদের জয়গা সীমানা নির্ধারণ কাজ সুজাপুর নিবাসী মোঃ লুৎফর রহমান চৌধুরীর ছেলে ডাঃ মোঃ মুশফিকুর রহমান চৌধুরী লিও এর অভিযোগেন পরিপ্রেক্ষিতে দির্ঘ ৫ বছর যাবৎ সকল প্রকার কাজ বন্ধ থাকে।

স্থানীয় ভুক্তভোগীরা প্রশাসনের সকল পর্যায়ে যোগাযোগ করে ব্যার্থ হলে দিনাজপুর-৫ (ফুলবাড়ী-পার্বতীপুর)আসনের এমপি ও সাবেক মন্ত্রী বর্তমান প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রনালয়ের স্থায়ী কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. মোস্তাফিজুর রহমনা ফিজার এম.পির দ্বারস্থ হলে ৯জানুয়ারী রিববার সকাল ৯টায় এম,পি নিজে উপস্থিত থেকে সকল সীমানা নির্ধারনের প্রয়োজনে উপভয়ের জায়গা মেপে সীমানা নির্ধারণ করে দেন এবং সকল প্রকার বন্ধ কাজ শুরু করতে বলেন। এসময় বাদি ও বিবাদীগন উপস্থিত ছিলেন। মন্ত্রীর এমন কার্জক্রমের ভুক্তভোগীরা স্বস্তির নিস্বাস ফেলেন। এবং তাদের জায়গার সঠিক মাপ পেয়ে খুশি প্রকাশ করেন।

এময়,ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফখরুল ইসলাম,পৌর প্যানেল মেয়র মোঃ মামুনুর রশিদ চৌধুরী,শহীদ স্মৃতি আদর্শ ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক ও গ্রীনল্যান্ড উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা মোঃ মোকাররম হোসেন বিদ্যুৎ,বিরামপুর সরকারী কলেজের প্রভাষক মোঃ আশিকুর রহমান চৌধুরী, সাত গম্বুজ মসজিদের ঈমাম,মোয়াজ্জেম,মসজিদের সভাপতি,স্থানীয় গন্যমাণ্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য