দিনাজপুর সংবাদাতাঃ কাহারোল উপজেলার ৫নং সুন্দরপুর ইউনিয়নের বোয়ালপাতেমা গ্রামের কার্তিক চন্দ্র রায়ের মেয়ে শাপলা রায় দ্বীর্ঘদিন যাবত ৪নং তারগাও ইউনিয়নের পাহাড়পুর গ্রামের কৃষ্টো রায়ের ছেলে সুজন এর সাথে প্রায় দু-বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলছে শুধু তাই নয় তার সাথে দৈহিক সম্পর্কেও হয়েছে বলে দাবী করেন শাপলা।

হঠাৎ সুজনের অন্য জায়গায় বিয়ে ঠিক হওয়ার খবর পেয়ে শাপলা ছুটে আসে সুজনের বাড়ীতে সোমবার বিয়ের দাবিতে অবস্থান করলে সুজনের মা এবং ভাইয়ের বউ তাকে মারধর করে বলে শাপলা দাবী করছে।

অন্যদিকে সংস্লিষ্ঠ ইউপি সদস্য নিরেন চন্দ্র রায়ের সাথে আমাদের প্রতিনিধি মোবাইল ফোনে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি মারধরের কথা অশ্বিকার করে বলেন আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি তবে ৩ ফেব্রুয়ারী সোমবার গতরাতে মেয়েটিকে সুজনের বাড়ীতেই দুজন গ্রাম্যপুলিশের জেফাজতে সুরক্ষিত রাখা হয়েছে।

পারপার্শিকদের সাথে কথা বলে জানতে চাইলে তারা বলেন কালকে থেকে আসতে দেখেছে সুজনের বাড়ীতে একটু গালাগালি এবং ধস্তাধস্থী হয়েছে বলে তারা জানান। তবে এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত বর্তমানে শাপলা রায় সুজনের বাড়ীতে গ্রাম্য পুলিশের আওতায় রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য