ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে আগুনে পুড়ে ছাই হয়েছে ৫জনের বাড়িসহ ৮টি ঘর। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পৌরশহরের হঠাৎপাড়া এলাকায় এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এতে আগুনে পুড়ে প্রায় ১৫ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের।

পীরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়, মঙ্গলবার সকাল জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার পৌর শহরের হঠাৎপাড়া এলাকার বাসিন্দা ভ্যান চালক লতিফ ওরফে ফুটারু মোহাম্মদের বাড়িতে বৈদ্যুতিক শর্ট সাার্কিট থেকে আগুন লাগে। তাৎক্ষনিক ভাবে আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে।

এ সময় আগুনে পুড়ে লতিফ, শাহিন, আনোয়ার ও শাহাজানের চারটি বাড়ির ০৮টিঘর, নগদ টাকা আসবাবপত্র ও বিভিন্ন মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এতে আগুনে পুড়ে প্রায় ১৫ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের। পরে স্থানীয় লোকজন ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনা স্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থরা সকলেই দিন মুজুর ও ভ্যান চালক। এ অগ্নিকান্ডের পর ক্ষতিগ্রস্থরা খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে। এ ঘটনার পর মঙ্গলবার দুপুরে পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেজাউল করিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ বিষয়ে পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেজাউল করিম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাস্থল পরিশর্দন করেছি। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্থ প্রতিটি পরিবারকে শুকনো খাবার, কম্বল ও ১৫ হাজার টাকা করে সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। উপজেলা পরিষদ থেকে ক্ষতিগ্রস্থদের আরো সহায়তা করা হবে বলেও জানান তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য