দিনাজপুর সংবাদাতাঃ নবাবগঞ্জ উপজেলার বিনোদনগর ইউনিয়নের মজিদ নগর কারিগরি স্কুলের শিক্ষার্থী আয়শা সিদ্দিকা (১৭) সড়ক দূর্ঘটনার কারণে এস এস সি পরীক্ষা দিতে পরল না। তার রোল নং ছিল ২০৬৬৩২। সে উপজেলার চাকপাড়া গ্রামের এফাজ উদ্দীনের মেয়ে।

সে সোমবার বাড়ী থেকে নবাবগঞ্জ পাইলট সরকারী উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে আসার সময় অটোচার্জার থেকে পড়ে মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে গুরুতর আহত হয়। ওই অবস্থায় সে পরীক্ষা কেন্দ্রে গিয়ে পরীক্ষা দেয়ার সময় বমি করতে করতে অসুস্থ হয়ে পড়ে।

পরে তাকে সাড়ে ১১ টার দিকে নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। সে বর্তমানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভারপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ আল আমিন কাজী জানান, তার কাছে মনে হচ্ছে মেয়েটি মাথায় ভাল আঘাত প্রাপ্ত হয়েছে।

কারণ সে পরীক্ষা কেন্দ্রে বমি করেছে। আবার চিকিৎসাধীন অবস্থাতেও বমি করেছে। তাকে চিকিৎসা সেবা প্রদান সহ পর্যবেক্ষনে রাখা হয়েছে।

বিকেল পর্যন্ত তার অবস্থার যদি উন্নতি না হয় তাহলে তাকে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।অপরদিকে এবারের এস এস সি ও সমমানের পরীক্ষায় অনুপস্থিতির সংখ্যা খুব কম।

পরীক্ষার ১ম দিনে দাখিলে কোরআন বিষয়ে পরীক্ষায় ৫৯৯ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১৯ জন, এস এস সি বাংলা বিষয়ে পরীক্ষায় ২২৮৯ পরীর্ক্ষীর মধ্যে ১০ জন এবং এস এস সি(ভোকেশনাল) বাংলা বিষয়ে পরীক্ষায় ১৮৯ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৫ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল।

বহিস্কার নাই বলে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন জানান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য