রংপুরে ৩ দফা দাবি আদায়ে মোটর মালিক সমিতি ধর্মঘটের আলটিমেটাম ঘোষণা করেছে। গতকাল রোববার দুপুরে কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল চত্বরে আয়োজিত জেলার বাস ট্রাক ট্যাংকলরি মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের যৌথ সভায় ধর্মঘটের আলটিমেটান দেন রংপুর জেলা মোটর মালিক সমিতির যুগ্ম সম্পাদক ও রংপুর বিভাগ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সদস্যসচিব এ কে এম আজিজুল ইসলাম রাজু।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন রংপুর জেলা মোটর মালিক সমিতির কোষাধ্যক্ষ আখলাক হোসেন সুইট, সহঃ সড়ক সম্পাদক মোতালেব হোসেন বাদল, দপ্তর সম্পাদক মোজাহারুল আজম চৌধুরী, জেলা ট্রাক ও ট্যাংকলরী শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মানিক প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, আমাদের দাবিগুলো মানা যৌক্তিক হলেও প্রশাসন বিভিন্ন সময় শুধু টালবাহানা করে আসছে। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে, আন্তঃ জেলা দ্বিতল বাস চলাচল বন্ধ করতে হবে। রসিকের প্রতি থানায় গাড়ীর কাগজপত্র চেকিংয়ের নামে পুলিশি হয়রাণী বন্ধ করে নির্দিষ্ট একটি জায়গায় অথবা বাস ও ট্রাক টার্মিনালে চেকিং করার ব্যবস্থাসহ চেকিং পরবর্তী টোকেন লাগানোর ব্যবস্থা গ্রহণ।

হাইওয়ে হতে লেগুনা, পিক আপ ভ্যান, থ্রি হুইলার, ব্যাটারি চালিত অটো, ট্যাক্টর, ট্রলি, ডিজেল চালিত রেজিস্ট্রেশন বিহিন অবৈধ যান চলাচল বন্ধ করতে হবে। দাবির প্রতি সমর্থন ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ইতোমধ্যে দাবি সম্বলিত চিঠি বিভাগীয় কমিশনার, আরপিএমপি কমিশনার, জেলা প্রশাসক, র‌্যাব ১৩ অধিনায়কসহ রংপুর বিভাগের সকল জেলার মালিক ও শ্রমিক ইউনিয়নে পাঠানো হয়েছে।

রংপুর জেলা মোটর মালিক সমিতির যুগ্ম সম্পাদক ও রংপুর বিভাগ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সদস্যসচিব এ কে এম আজিজুল ইসলাম রাজু বলেন, আমরা বিভিন্ন বিভিন্ন সময় আমাদের দাবিগুলো বাস্তবায়নে প্রশাসনকে চাপ দিয়ে আসছি। তারা শুধু সময় ক্ষেপন করে আসছে।

আমাদের আর কালক্ষেপন করার সময় নেই। আগামি ৪ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত আমরা প্রশাসনকে সময় বেধে দিয়েছি। এর মধ্যে আমাদের দাবি পুরণ না হলে আগামি ৫ ফেব্রুয়ারী থেকে জেলার সকল মালিকরা গাড়ি ধর্মঘট পালন করবে। পরবর্তীতে বিভাগের ৮ জেলার পরিবহন মালিক শ্রমিকদের পক্ষ থেকেও কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য