কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী সীমান্তে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে এক বাংলাদেশি কিশোর নিহত হয়েছেন। শনিবার ভোরে পাখিউড়া সীমান্তে আন্তর্জাতিক পিলার ১০৩৯ এর সাব পিলার ৪ ও ৫ টি এর মাঝামাঝি স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার নারায়ণপুর ইউনিয়নের পাখিউড়া সীমান্তে বাংলাদেশি যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। কচাকাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন অর রশীদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মজিবর রহমান জানিয়েছেন, শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) ভোরে সীমান্তে গরু আনতে গেলে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে ওই যুবক নিহত হন।

নিহত যুবকের নাম জামাল (২১)। তিনি নারায়ণপুর ইউনিয়নের ৫নং মন্ত্রীর চর গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে বলে বলে জানা গেছে।

নারায়ণপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড সদস্য শাহাদৎ হোসেন বলেন, ‘শনিবার ভোরে পাখিউড়া সীমান্তপথে গরু চোরাচালান করতে গিয়ে বিএসএফের গুলিতে জামাল (২১) নামে এক বাংলাদেশি ডাঙওয়াল (গরু পাচারের রাখাল) নিহত হয়েছে। এ খবর পাওয়ার পর সকালে তার বাড়িতে কাউকে পাওয়া যায়নি। সম্ভবত গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কোথাও চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়েছিল। পরে মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পর তার লাশ বাড়িতে নিয়ে আসা হয়।’

কচাকাটা থানার ওসি বলেন, ‘নিহতের বাঁ পাজরে গুলির আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। আমরা লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা নিচ্ছি। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ২২ ব্যাটালিয়নের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. মোহাম্মদ জামাল হোসেন বলেন, ‘নারায়ণপুর সীমান্তের পাখিউড়া বর্ডার আউট পোস্টের (বিওপি) অধীন সীমান্তে এক রাউন্ড গুলির শব্দ পাওয়া গেছে বলে জানতে পেরেছি। গুলিবিদ্ধ একজনের লাশ উদ্ধার হলেও সে কীভাবে এবং কার গুলিতে নিহত হয়েছে তা এখনই নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না, ময়নাতদন্ত শেষে বিস্তারিত বলা যাবে।’

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য