কুড়িগ্রামের চর রাজিবপুর উপজেলার বালিয়ামারী ও ভারতের কালাইয়ের চর বর্ডার হাটে ২৫ জন ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। চর রাজিবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও দায়িত্ব প্রাপ্ত ম্যাজিজষ্ট্রেট মো. মেহেদী হাসান ওই ভ্রাম্যমাণ আদালত বসান।

জানা গেছে, শুরু থেকেই ওই বর্ডার হাটে ব্যবসায়ীরা নিয়ম না মেনে মালামাল আমদানি ও রপ্তানি করে। বাংলাদেশ থেকে নিয়ে যাওয়া শুকনো সুপারীর বস্তা। যার প্রতি বস্তায় ১০০ কেজি অনুমতি থাকা সত্ত্বেও তা বাড়িয়ে ১২০ কেজি থেকে ১৩০ কেজি পর্যন্ত বস্তায় ভর্তি করে নিয়ে যায় ব্যবসায়ীরা।

এতে লেবারদের ৪ জন লাগে একটি বস্তা বহন করতে। গত বছর এরূপ বস্তার নিচে পড়ে নুরনবী (২৮) নামের এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়। তখন থেকেই বস্তার ওজন ১০০ কেজির উপরে নেওয়া নিষেধ করা হয় উপজেলা প্রশাসন থেকে। কিন্তু ব্যবসায়ীরা বেশি টাকার লোভে অবৈধভাবে এবং অতিরিক্ত মালপত্র আদান প্রদান করে থাকে।

ওই অভিযোগ আমলে নিয়ে গত বুধবার হঠাৎ নির্বাহী কর্মকর্তা সাহেব ভ্রাম্যমাণ আদালত বসান। এতে ২৫ জন ব্যবসায়ীর জন প্রতি ৮ বস্তা শুকনো সুপারির বস্তা পরিমাপ করে ১ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা আদায় করেন। এতে প্রায় ১ লক্ষ ২৯ হাজার টাকা আদায় হয়েছে। উল্লেখ্য চলতি মাস থেকে সপ্তাহে ১ দিনের পরিবর্তে ২ দিন বর্ডার হাট চালু করেছে বাণিজ্য মন্ত্রনালয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য