বৃহস্পতিবার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ভুয়া ডাক্তার ও মাদক সেবন করে গণউপদ্রবের অভিযোগে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৩ জনের কারাদণ্ড হয়েছে ।

৩০ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইয়ামিন হোসেন বীরগঞ্জ ক্লিনিক সংলগ্ন লাইফ কেয়ারে অভিযান চালিয়ে ভুয়া ডাক্তার উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের মাহাতাবপুর গ্রামের মো. সিদ্দিকুল্লাহ’র ছেলে মো. তাজুল ইসলাম (৩২) কে গ্রেপ্তার করে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের ৫২ ধারায় ২ বছরের কারাদণ্ড প্রদান করেন এবং তার বীরগঞ্জ ও গোলাপগঞ্জ চেম্বারটি সিলগালা করে দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য ভুয়া ডাক্তারি সনদপত্র নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে রোগীদের ভুয়া চিকিৎসা প্রদান করে আসছেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বীরগঞ্জ থানা পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী কর্মকর্তা তাকে আটক করে ২ বছরের কারাদণ্ড প্রদান করেন।

অন্যদিকে মাদক সেবন করে গণউপদ্রব তৈরির অভিযোগে বীরগঞ্জ উপজেলার সুজালপুর ইউনিয়নের মো. হাসিনুর রহমানের ছেলে মো. মাসুদ রেজা (২২) কে ৬ মাসের কারাদণ্ড ও ছিড়াবাজু গ্রামের মো. সিদ্দিকুল্লাহ এর ছেলে মো. তাবুল ইসলামকে ৬ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য