পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় মঙ্গলবার দুপুরে রংপুর প্রধান ডাকঘরে একুশে টেলিভিশনের সাংবাদিক লিয়াকত আলী বাদলসহ চার সাংবাদিককে লাঞ্ছিত করা হয়। এ ঘটনার প্রতিবাদে সাংবাদিকরা সড়ক অবরোধ করলে অভিযুক্ত চার কর্মচারীকে মন্ত্রীর নির্দেশে প্রত্যাহার করা হয়। এছাড়াও জেলা পোস্ট মাস্টারের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেওয়া হয়।

পুলিশ ও সাংবাদিকরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে একুশে টেলিভিশন, বাংলা ট্রিবিউন ও ঢাকা ট্রিবিউনের রংপুর প্রতিনিধি লিয়াকত আলী বাদল ও ক্যামেরাম্যান আলী হায়দার রনি পেশাগত দায়িত্ব পালনে তথ্য নিতে মঙ্গলবার সকালে নগরীর প্রধান ডাকঘরের পোস্ট মাস্টারের কাছে যান। এ সময় ডাকঘরের কয়েকজন কর্মকর্তা ও কর্মচারী বাধা দেন। এক পর্যায়ে তারা উত্তেজিত হয়ে সাংবাদিক বাদলকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন।

ঘটনাটি জানাজানি হলে সাংবাদিকরা পোস্টমাস্টার আলা মিয়ার কাছে বিষয়টি জানতে চান। এ সময় পোস্টমাস্টারের নির্দেশে ড্রাইভার ফরহাদ হোসেন, কর্মচারী সাহেব আলী সহকারী পোস্টমাস্টার শাহানাজ বেগম, পোস্টাল অপারেটর আফরোজা পলিসহ কয়েকজন কর্মচারী সাংবাদিকদের ওপর হামলা করে। এতে বাংলা টিভির প্রতিনিধি বাধন, দৈনিক করতোয়ার প্রতিনিধি সাজ্জাদ হোসেন বাপ্পি, মাছরাঙ্গা টিভির ক্যামেরাম্যান ফরহাদ হোসেন, এশিয়া টিভির সুমন, ক্যামেরাম্যান হিমেল আহত হন।

রংপুর প্রধান ডাকঘরে সাংবাদিক লাঞ্ছিত ৪ কর্মচারী প্রত্যাহার -Dinajpur, Dinajpur news, দিনাজপুর, দিনাজপুর নিউজ, বাংলা, বাংলানিউজ bangle, banglanews, Rangpur District, Kurigram District, Panchagarh District, Nilphamari District, Gaibandha District, Thakurgaon District, Lalmonirhat District, রংপুর জেলা, কুড়িগ্রাম জেলা, পঞ্চগড় জেলা, নীলফামারী জেলা, গাইবান্ধা জেলা, ঠাকুরগাঁও জেলা, লালমনিরহাট জেলা Bangladesh, বাংলাদেশ I+ঘটনার খবর পেয়ে রংপুরে কর্মরত প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকরা ডাকঘর ঘেরাও করে রাখে। পরে সাংবাদিকরা ডাকঘরের সামনে শহরের প্রধান সড়কে বসে অবরোধ করে এ ঘটনার প্রতিবাদ ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করতে থাকেন। বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তফা জব্বারকে জানান সাংবাদিকরা।

তার নির্দেশে বিভাগীয় পোস্টমাস্টার প্রদীপ কুমার ঘটনাস্থলে এসে সাংবাদিকদের কাছে ক্ষমা চান এবং অভিযুক্ত কর্মচারী সহকারী পোস্টমাস্টার শাহনাজ বেগম, অপারেটর সৈয়দা আফরোজা পলি, গাড়িচালক ফরহাদ এবং ইডি কর্মচারী সাহেব আলীকে প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন এবং অপর অভিযুক্ত পোস্টমারের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানান। পরে সাংবাদিকরা অবরোধ তুলে নেন প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন।

রংপুর বিভাগীয় পোস্টমাস্টার প্রদীপ কুমার জানান, সাংবাদিক লাঞ্ছিতের ঘটনায় আমরা খুবই দুঃখিত। সাংবাদিক সমাজের কাছে আমরা এ বিষয়ে মাফ চাইছি। আমরা অভিযুক্ত চারজনকে চিহ্নিত করে ইতোমধ্যেই তাদের প্রত্যাহার করেছি। অভিযুক্ত পোস্টমাস্টার এর ব্যাপারে বিষটি আমি মৌখিকভাবে প্রধান পোস্টমাস্টার কে জানিয়েছি। দ্রুত গতিতে তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য