বাচ্চাদের বেড়ে ওঠার জন্য যাবতীয় আয়রনের খনি হলো পালং শাক। আর আমাদের সোনামনিরা শাক তো খেতেই চায় না। তাহলে আমরা যদি ১০ মিনিটের মধ্যে পালং শাক দিয়ে এমন একটি স্ন্যাক্স তৈরী করে ওদের সামনে দি, যেটা দেখে ওরা লোভ সামলাতে না পেরে টুপ করে মুখে দিয়ে খেয়ে ফেলবে, কেমন হয় বলুন?

টুপ করে মুখে দেয়া যায় এরকম খাবারগুলিকে আমরা পপ বলি। যেমন পপ কর্ণ, পপ চিকেন। আর টুপ করে মুখে দেবার জন্য এগুলির সাইজ কিন্তু হয় ছোটো, যেনো একটা পর একটা মুখে দেয়া যায়। এই ফরমুলায় তৈরী করছি পপ পালং।

 

 

তৈরী করতে লাগছে –
▶ পালং শাক ২৫০ গ্রাম
▶ কাঁচা মরিচ ১ টেবিল চামুচ
▶ লবণ ১ চা চামুচ
▶ পিঁয়াজ ০.৫ কাপ
▶ আদা বাটা ০.৫ চা চামুচ
▶ রসুন বাটা ০.৫ চা চামুচ
▶ গোল মরিচের গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ
▶ সামান্য ধনে পাতা
▶ টেলে নেয়া জিরা গুঁড়ি ১ চা চামুচ
▶ বেকিং পাউডার ০.৫ চা চামুচ
▶ বেসন মোট ১.৫ কাপ

✔ চাইনিজ/ইন্ডিয়ান রসুন মেশিনে বাটলে অনেক সময় সবুজ হয়, আবার অনেক কায়দা করে এটাকে সাদাও রাখা যায়। আমি মেশিনে করি দেখে মাঝে মাঝে আমার রসুন বাটা সবুজ হয়। আর যেহেতু রান্নায় দেয়ার পরে রঙ এর কোনো গুরুত্ব থাকছে না, তাই আমি রসুন বাটার রঙ সাদা করার কোনো প্রয়োজন বোধ করিনা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য