দিনাজপুর সংবাদাতাঃ কনকনে ঠান্ডা,ঘন কুয়াশা ও বিরুপ আবহাওয়ার কারণে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট পৌর সভা সহ উপজেলার ৪ ইউনিয়নে কোল্ড ইঞ্জুরিতে আক্রান্ত হয়েছে ইরি-বোরোর বীজ তলা। প্রায় এক মাস থেকে ঘন কুয়াশার কারণে সূর্যের আলো দেখা যায়নি। উপজেলায় ঘন কুয়াশা আর কনকনে শীতে বোরো চারা বিবর্ণ হয়ে হলুদ বর্ণ হয়ে যাচ্ছে। সেইসাথে বৃষ্টির ন্যায় শিশির পড়ায় আলূ ও সরিষা ক্ষেতে দেখা দিয়েছে পচন রোগ। ফলে কৃষকরা হতাশায় ভুগছে।

উপজেলায় ৪ ইউনিয়ন ও ১টি পৌর এলাকায় গতবার আমনের আশানুরূপ ফলন না হওয়ায় কৃষকরা বোরো চাষের উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ে। বীজতলায় বোরো ধান ছিটিয়ে বীজতলা তৈরি করে। গত এক মাসের অব্যাহত ঘন কুয়াশা এবং রাতে বৃষ্টির ন্যায় শিশির পড়ায় বোরোর বীজতলার চারা বিবর্ণ হয়ে গেছে।

অনেক কৃষকের বীজতলার চারায় পোকার প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। কৃষকরা বীজতলা রক্ষার জন্য সারসহ বিভিন্ন কীটনাশক ব্যবহার করছে। ঘোড়াঘাট উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জানান, এবার ঘোড়াঘাট উপজেলা ও পৌরসভায় ৬০০ হেক্টর জমিতে কৃষকরা বীজ তলা তৈরি করেছে। বীজ তলা কোল্ড ইঞ্জুরী প্রতিরোধে কীটনাশক স্প্রে করতে হবে। কুয়াশা হাত থেকে রক্ষা করতে বীজ তলা পলিথিন দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে। বীজ তলায় সেচ দিয়ে কুয়াশা বের করে দিতে হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য