দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে পুত্রবধূ মোছা. মোস্তানা আফরিন মিলির মামলায় গত ৮জানুয়ারী বুধবার বিকেল পাঁচটায় স্বামী ও শ্বশুরকে আটক করেছে ফুলবাড়ী থানা পুলিশ।

আটকৃতরা হলেন,ফুলবাড়ী উপজেলার পৌর এলাকার কাঁটাবাড়ী গ্রামের মৃত জহির উদ্দিনের ছেলে কাপড় ব্যবসায়ী মো. সাগীর আলী (৭০) ও তার ছেলে মামলার বাদী মোছা. মোস্তানা আফরিন মিলির স্বামী উপজেলার সিদ্দিসী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. মামুন আলী (৩৭)।

মামলার এজাহার সুত্রে জানাযায়, বিরামপুর উপজেলার পূর্ব জগন্নাথপুর গ্রামের মৃত মোস্তফা রহমানের মেয়ে মোছা: মোস্তানা আফরিন মিলি (২৪) এর সাথে গত ২০১৪ সালের ২৪ জানুয়ারী ফুলবাড়ী পৌর এলাকার কাটাবাড়ী গ্রামের কাপড় ব্যবসায়ী মো. সাগীর আলীর ছেলে সিদ্দিসী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. মামুন আলী (৩৭), বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।

পরর্বতীতে তাদের একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়,বর্তমানে ওই কন্যাসন্তানের বয়স তিন বছর। এর মধ্যে মিলির স¦ামী মামুন আলী যৌতুকের দাবীতে তার উপর শারিরিক ও মানষিক নির্যাতন চালায়।

বিষয়টি পরিবারের লোকজোন জানতে পারলে দুই পরিবারের মাঝে পারিবারিক কলোহো বাঁধে এক পর্যায়ে, মোছা: মোস্তানা আফরিন মিলি (২৪) বাদী হয়ে গত ২০১৯ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর দিনাজপুর জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেলে, বিজ্ঞ আদালত তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ান জারী করেন, এরই প্রেক্ষিতে গতকাল বিকেল পাঁচটায় স্থানীয় ননী গোপাল মোড় থেকে ফুলবাড়ী থানা পুলিশ ওই পিতাপুত্রকে আটক করে।

ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ফখরুল ইসলাম বলেন, মোছা, মোস্তানা আফরিন মিলি দিনাজপুর জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে দায়েরকৃত মামলায় বিজ্ঞ আদালত মামলার আসামী মো. সাগীর আলী ও তার ছেলে মামুন আলীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ান জারী করেন। ওই গ্রেফতারী পরোনায় গতকাল বিকেল পাঁচটায় ওই পিতা-পুত্রকে আটক করা হয়েছে। আটক দুইজনকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য