ভারতের রাজধানী দিল্লির জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ে (জেএনইউ) হামলার ঘটনায় আহত বামপন্থী শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ । যদিও এই হামলার ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করা হয়নি।খবর আল জাজিরার।

আল জাজিরা জানায়, মঙ্গলবার পুলিশের দায়ের করা মামলায় প্রথমে রাখা হয়েছে জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট আইশে ঘোষের নাম যিনি কিনা মুখোশধারীদের হামলায় আহত হয়েছেন ।

জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী এবং বামপন্থী রাজনীতিবীদ কবিতা কৃষ্ণান পুলিশের এই মামলাকে প্রতিহিংসামূলক দাবি করেছে । এদিকে এই মামলার সমালোচনা করেছেন জেএনইউ টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন। জেএনইউ টিচার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সুরজিত মজুমদার বলেন, ‘এটা পুরোপুরি স্পষ্ট যে পুলিশ তাদের দায়িত্ব এড়িয়ে যেতে চাচ্ছে। আমি এর বাইরে কিছু দেখছি না। আমি বুঝতে পারছি না কিসের ভিত্তিতে যারা মারাত্বক আহত হয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে পুলিশ এই মামলা করলো’।

দিল্লির জেএনইউ-তে রবিবার দিবাগত রাতে লাঠিসোঁটা, লোহার রড নিয়ে দুর্বৃত্তরা তাণ্ডব চালানোর ঘটনায় আহত হন অন্তত ৩৪ জন শিক্ষার্থী ও শিক্ষক। বিশ্ববিদ্যালয়টির ছাত্র সংগঠনগুলো তখন অভিযোগ করে শাসক দল বিজেপির ছাত্র সংগঠন অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ (এবিভিপি)’র যোগসাজশে হামলা চালানো হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য