দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ৬ জানুয়ারি সোমবার দিনাজপুরে খ্রীষ্টিয়ান ধর্মের শান্তি রাণী সিস্টার সংঘের ৩জন সিস্টার আজীবন ব্রত ও ২জন সিস্টার ১ম সন্ন্যাস ব্রত গ্রহণের অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সকাল ৮টায় দিনাজপুরের সেন্ট ফ্রান্সিস জেভিয়ার ক্যাথিড্রাল গির্জায় পবিত্র খ্রীষ্টযাগ যা বিশেষ প্রার্থনা হিসেবে বোঝায় এর মাধ্যমে আজিবন ব্রত ৩ জন সিস্টার তানিয়া পাঙ্কলিনা গমেজ সিআইসি, সিস্টার জারমানা খালকো সিআইসি ও সিস্টার শশী ক্লারা রোজারিও সিআইসি এবং ২জন ১ম সন্ন্যাস গ্রহণকারী ব্রত সিস্টার সারা বাস্কে সিআইসি ও সিস্টার শিখা শিশিলিয়া সরেন সিআইসি’দের নিয়ে দিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এ সকল অনুষ্ঠানের মধ্যে বিশেষ প্রার্থনা শেষে সকাল ১০টায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও কেক কেটে আজীবন ও প্রথম সন্ন্যাস ব্রত গ্রহণ দিনটি উদযাপন করা হয়। পবিত্র খ্রীষ্টযাগ পরিচালনা করেন দিনাজপুর খ্রীষ্টিয় ধর্মের ধর্মপ্রদেশের বিশপ ড. সেবাস্টিয়ান টুডু। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিভাগীয় বিশপ ও বাংলাদেশ কারিতাস এর প্রেসিডেন্ট ড. জের্ভাস রোজারিও, শান্তি রাণী সিস্টার’স সংঘের সুপেরিয়র জেনারেল সিস্টার রেবেকা কিসপট্টা সিআইসি এবং রংপুর বিভঅগের বিভিন্ন জেলার গির্জা সমূহের জাযগ পুরোহিতগণ।

সন্ন্যাসব্রত বলতে নিজেকে যীশু উপর উৎস্বর্গ করে দেওয়া এবং আজীবন ব্রত বলতে যীশু’র উপর নিজেকে আজীবনের জন্য উৎস্বর্গ করে দিয়ে ধর্ম প্রচার কাজে নিয়োজিত রাখা। অন্ধকারাচ্ছন্ন জায়গা আলোকিত করতে নিজেকে তৈরী করে এই মহৎ কাজে প্রেরণা জোগানোই হচ্ছে ব্রত গ্রহণের মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।

প্রতি বছর ৬ জানুয়ারী জাকজমকভাবে দিনব্যাপী বিশেষ প্রার্থনা ও বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিভিন্ন জনের ব্রত গ্রহণের অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ৬ জানুয়ারী সোমবার দিনাজপুরে সন্ন্যাস ব্রত গ্রহণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য