দিনাজপুর সংবাদাতাৎ ৬ই জানুয়ারি স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে আজ সোমবার যথাযথ মর্যাদায় মহারাজা স্কুল ট্র্যাজেডি দিবস পালন করা হয়েছে। ১৯৭২ সালের ৬ জানুয়ারির এই দিনে ঐ স্কুলে সংঘটিত মাইন বিফোরণের ঘটনায় অর্ধ সহস্র মুক্তিযাদ্ধার অকাল মৃত্যু সংঘটিত হয়েছিল। দিবসটি স্মরণে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বক্তাগণ অভিমত ব্যক্ত করেন যে, মহান মুক্তিযুদ্ধে বিজয় লাভের পর এত বড় ট্র্যাজেডিক ঘটনা বাংলাদেশের কোথাও সংঘটিত হয় নাই।

স্মৃতি পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক মেয়র সফিকুল হক ছুটুর সভাপতিত্ব এই আলোচনা সভা দিনাজপুর প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা করেন জাতীয় সংসদের সাবেক হুইপ মিজানুর রহমান মানু, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রিয় কমিটির অন্যতম সদস্য আলতাফ হোসাইন, দিনাজপুর নাট্য সমিতির সভাপতি চিত্ত ঘোষ, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরুপ বকসী বাচ্চু, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ নেতা ডা. আহাদ আলী, জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট মেহেরুল ইসলাম, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল, জেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, বাসদ নেতা সারোয়ারুল ইসলাম ক্লিপটন, কমিউনিস্ট লীগ নেতা আখতার আজিজ, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বাতেন, নাট্যাভিনেতা তহিদুল হক, ৬ই জানুয়ারি স্মৃতি পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক আজহারুল আজাদ জুয়েল প্রমুখ। বক্তাগণ মহারাজা স্কুল ট্র্যাজেডি দিবস জাতীয় পর্যায়ে উদযাপন করার এবং পাঠ্য পুস্তকে তুলে ধরার দাবী জানান। এই বিষয়ে ব্যাপক গবেষণা করা ও সঠিক তথ্য উদঘাটন করা উচিৎ বলে বক্তাগণ মত ব্যক্তকরেন। বক্তাগণ শহিদদের যথোপযুক্ত তালিকা প্রণয়নের দাবীও জানান। আলোচনা সভা পরিচালনা করেন সুলতান কামালউদ্দিন বাচ্চু।

এর আগে ৬ জানুয়ারি স্মৃতি পরিষদের পক্ষ হতে শহিদ মুক্তিযোদ্ধাদের চেহেলগাজী মাজার প্রাঙ্গণের গণকবরে ও মহারাজা স্কুল প্রাঙ্গণের শহিদ স্মৃতিফলকে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়। শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ শেষে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশ গড়ার শপথ বাক্য পাঠ করান স্মৃতি পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুলতান কামালউদ্দিন বাচ্চু। দিনাজপুর জেলা প্রশাসন, পাটুয়াপাড়া মহল্লা আওয়ামী লীগ, ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, আদর্শ মহাবিদ্যালয়, মাহারাজা উচ্চ বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন সংগঠণও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ হতেও শহিদদের গণকবর ও স্মৃতি ফলকে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়। শহিদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে কালা পতাকা উত্তোলন ও কালো ব্যাজ ধারণ করা হয়। পরিষদের পক্ষ হতে বাদ আছর দোয়া খায়ের ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয় মহারাজা স্কুল মসজিদে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য