দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা গরীব অথচ প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের খুঁজে বের করতে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান-বিকেএসপি এবারই প্রথম শুরু করেছে দীর্ঘ মেয়াদী প্রশিক্ষন-এর প্রাথমিক বাছাই কার্যক্রম। দিনাজপুরে গত শুক্রবার ও শনিবার চলে এই ক্ষুদে খেলোয়াড় বাছাই কার্যক্রম। এতে অংশ নেয় রংপুর বিভাগের ১ হাজার ১৫০ জন ক্ষুদে খেলোয়াড়।

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান-বিকেএসপি’র মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ রাশীদুল হাসান জানান, ক্রীড়া মেধাসম্পন্ন খেলোয়াড়দের সাধারন শিক্ষাসহ ক্রীড়াক্ষেত্রে দীর্ঘমেয়াদী প্রশিক্ষন প্রদানের জন্য বিকেএসপি প্রতিবছরই প্রশিক্ষনার্থী ভর্তি করে থাকেন। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মানের খেলোয়াড় সৃষ্টির লক্ষ্যে প্রতিবছরই এই বাছাই কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয় রাজধানী ঢাকায়।

এতে প্রত্যন্ত অঞ্চলের গরীব ও প্রতিভাবান ক্ষুদে খেলোয়াড়রা অর্থ ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধার অভাবে সেই বাছাই কার্যক্রমে অংশগ্রহনের সুযোগ থেকে বঞ্চিত হন। এসব কথা বিবেচনা করে এবারাই প্রথম ঢাকার বাইরে প্রত্যন্ত অঞ্চলে অঞ্চল ভিত্তিক এই বাছাই কার্যক্রম শুরু করেছে বিকেএসসি। এরই অংশ হিসেবে রংপুর বিভাগের ক্ষুদে খেলোয়াড় বাছাই করতে বিকেএসপি’র দিনাজপুর আঞ্চলিক প্রশিক্ষন কেন্দ্রে শুক্রবার ও শনিবার অনুষ্ঠিত হয় বাছাই কার্যক্রম।

বিকেএসপি’র মহাপরিচালক জানান, বিকেএসপি’র দিনাজপুর আঞ্চলিক প্রশিক্ষন কেন্দ্রের আয়তন দ্বিগুন বাড়ানো হবে। তখন এখানে আরও ইভেন্টে প্রশিক্ষন কার্যক্রম বৃদ্ধি করা হবে।

বিকেএসপি দিনাজপুর আঞ্চলিক প্রশিক্ষন কেন্দ্রের উপ-পরিচালক আখিনুর রহমান রুশো জানান, ক্রিকেট, ফুটবল, সাঁতার, এ্যাথলেটিক্সসহ ১৭টি ইভেন্টে দিনাজপুরে গত দু’দিনে রংপুর বিভাগের ৮টি জেলার মোট ১ হাজার ১৫০ জন ক্ষুদে খেলোয়াড় বাছাই কার্যক্রমে অংশ নিয়েছে।

বিকেএসপি’র প্রধান কোচ মোঃ মাসুদ হাসান জানান, শুধু জেলা নয়, উপজেলা পর্যায়ের ক্ষুদে খেলোয়াড়রাও সহজেই এই বাছাই কার্যক্রমে অংশ নিয়েছে। এতে ব্যাপক সাড়া পড়েছে। তিনি আশা প্রকাশ করেন, আগামীতে আরও ব্যাপক সাড়া পাবেন তারা।

এদিকে রাজধানী ঢাকার বাইরের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বিকেএসপি এই বাছাই কার্যক্রম শুরু করায় খুশী ক্ষুদে খেলোয়াড় ও অভিভাবকরা। বিরল থেকে আসা অভিভাবক আশরাফুল ইসলাম জানান, গতবছর তার ছেলেকে ঢাকায় নিয়ে গিয়ে বাছাই কার্যক্রমে অংশ নিয়েছিলো। কিন্তু বয়স কম থাকায় হয়নি। ঢাকায় যাওয়া আসা এবং থাকা সব মিলিয়ে তার খরচ হয়েছিলো অনেক। কিন্তু বাড়ী থেকেই এখানে আসতে পেরেছেন। এতে তার কোন খরচই হয়নি। এ জন্য সন্তোষ প্রকাশ করেন তিণি।

এই বাছাই কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন বিকেএসপি’র উপদেষ্টা নাজমুল আবেদীন ফাহিমসহ বিকেএসপি’র অন্যান্য কর্মকর্তারা।

বিকেএসপি’র জনসংযোগ কর্মকর্তা মোঃ আশরাফুজ্জামান জানান, আগামী ৭ ও ৮ জানুয়ারী সিলেট বিভাগে, ১১ ও ১২ জানুয়ারী চট্টগ্রাম বিভাগে, ১৫ ও ১৬ জানুয়ারী বরিশাল বিভাগে, ১৮ ও ১৯ জানুয়ারী খুলনা বিভাগে এবং ২৪ ও ২৫ জানুয়ারী ঢাকা, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগে ক্ষুদে খেলোয়াড় বাছাই কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য