সৈয়দপুরের সোহেল হত্যা মামলার এজাহারনামীয় আরো ২ আসামীকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। সম্প্রতি সৈয়দপুর শহরের পাঁচমাথা মোড় এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে মামলার এজাহারভূক্ত আসামী রকি (২৩) এবং সনু (২৫)। তারা উভয়ে সৈয়দপুর শহরের মুন্সিপাড়া খেঁজুরবাগ এলাকার ইলেকট্রিক মিস্ত্রী মো. কোরবান আলী ওরফে কাল্লুর ছেলে।

এ নিয়ে সোহেল হত্যার মামলার এজাহারনামীয় ৩ আসামীসহ মোট ৪ জনকে গ্রেফতার করলো পুলিশ। এর আগে গত ১১ নভেম্বর সোহেল হত্যা মামলার ৪ নম্বর আসামী সৈয়দপুর শহরের মুন্সিপাড়া খেঁজুরবাগ এলাকার ইলেকট্রিক মিস্ত্রী মো. কোরবান আলী ওরফে কাল্লুর ছেলে মো. ফয়সাল (১৫) এবং অপর একজন শহরের ওয়াপদা মোড় এলাকার সদরুল হাসানের ছেলে মো. সুরুজকে (১৯) গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরের চাঁদনগর মহ্ল্লার মো. সাইদুল ইসলামের ছেলে মো. সোহেল (২৫)। সৈয়দপুর বিসিক শিল্প নগরীতে আলম তাঁরকাটা ফ্যাক্টরিতে শ্রমিকের কাজ করতো সে। ঘটনার দিন গত ৬ নভেম্বর সন্ধ্যায় বাড়ির সামনে থেকে তাঁর বাইসাইকেল চুরি যায়। চুরি যাওয়া বাইসাইকেলের খোঁজে বের হয়ে শহরের খেঁজুরবাগ এলাকার বখাটে রকি, সনু, জনি ও ফয়সালসহ অজ্ঞাত ৭ থেকে ৮ জন বখাটের বেদম পিটুনিতে সোহেলের মৃত্যু ঘটে।

এ ঘটনায় গত ৭ নভেম্বর রাতে নিহত সোহেলের বাবা মো. সহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে ৪জন আসামী রকি, সনু, জনি ও ফয়সাল নামে সৈয়দপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবুল হাসনাত খান জানান, সোহেল হত্যা মামলার এজাহারনামীয় ৪জনকেগ্রেফতার করা হলো।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য