মাসুদ রানা পলক, ঠাকুরগাঁওঃ  ঠাকুরগাঁও জেলায় শীতজনিত রোগে ২ শতাধিক শিশু বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়েছে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে ভর্তি হয়েছে।

ডায়রিয়া, নিউমোনিয়া, স্বর্দি, জ্বর নিয়ে এরা ভর্তি হয়েছেন বলে জানান ঠাকুরগাঁও সিভিল সার্জন ডা. আনোয়ারুল ইসলাম। এদিকে ২৭ ডিসেম্বর শুক্রবার জেলার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস।

হিমেল হাওয়ায় কনকনে ঠান্ডা দ্বিগুন বেড়ে গিয়ে জনজীবন হয়ে উঠেছে বিপর্যস্ত। ২৮ ডিসেম্বর শনিবার দুপুর ১২টা থেকে সারাদিন পর্যন্ত সুর্যের দেখা পায়নি ঠাকুরগাঁও জেলার মানুষ।

শুধুমাত্র প্রয়োজনীয় কাজ ছাড়া ঘরের বাহিরে আসছেনা মানুষ। লেপমুড়ি দিয়ে ঘরের ভেতরেই দিনপার করছে সাধারণ মানুষ।

এদিকে ঠাকুরগাঁও জেলায় কনকনে ঠান্ডায় আগুন পোহাতে গিয়ে আলেমা বেগম ও রমিজা বেওয়া নামে দুই নারীর মৃত্যু হয়েছে। নিহত দুই নারীর বাড়ী ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ উপজেলায়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য