যৌথ নৌমহড়ায় অংশ নিতে যাচ্ছে রাশিয়া, চীন ও ইরান। ২৭ ডিসেম্বর শুক্রবার থেকে ভারত মহাসাগর ও ওমান সাগরে চার দিনের এ মহড়া শুরু হবে। বুধবার তেহরানে এক সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে বিষয়টি নিশ্চিত করেন ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর সিনিয়র মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবুলফজল শেকারচি।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সিবিএস-নিউজ-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সৌদি আরবে মার্কিন সামরিক উপস্থিতি বাড়ানোর বাস্তবতায় চীন-রাশিয়ার সঙ্গে নৌমহড়া চালাতে যাচ্ছে রিয়াদের আঞ্চলিক প্রতিদ্বন্দ্বী তেহরান।

ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর মুখপাত্রের দাবি, ভারত মহাসাগরের উত্তর অংশে ও ওমান সাগরে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের নিরাপত্তা শক্তিশালী করার লক্ষ্যে এই নৌমহড়া অনুষ্ঠিত হবে।

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবুলফজল শেকারচি বলেন, বিশ্ব বাণিজ্যে ওমান সাগর ও ভারত মহাসাগর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বিশ্বের বহু দেশের বাণিজ্যিক জাহাজ এই রুট দিয়ে চলাচল করে। কাজেই এখানকার নিরাপত্তা রক্ষার যথেষ্ট গুরুত্ব রয়েছে।

রাশিয়া ও চীনের সঙ্গে ইরানের সামরিক অভিজ্ঞতা বিনিময়কে এ মহড়া আয়োজনের আরেকটি লক্ষ্য বলে বর্ণনা করেন জেনারেল শেকারচি। তিনি বলেন, সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলা ও জলদস্যুদের দমন করা হবে এই মহড়ার তৃতীয় গুরুত্বপূর্ণ উদ্দেশ্য। সূত্র: পার্স টুডে, সিবিএস নিউজ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য