ফিলিপিন্সে নারিকেলের তাড়ি খেয়ে অন্তত ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং অসুস্থ হয়ে পড়া তিন শতাধিক লোককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদের মধ্যে কিছু লোক ক্রিসমাস পার্টি উদযাপনের সময় তাড়ি খান বলে দেশটির স্বাস্থ্য বিষয়ক কর্তৃপক্ষ সোমবার জানিয়েছে।

ফিলিপিন্সের রাজধানী ম্যানিলার দক্ষিণের দুটি প্রদেশ, লাগুনা ও কেজোনে এসব ঘটনা ঘটে। সবাই লাম্বানোগ নামের স্থানীয়ভাবে জনপ্রিয় একটি তাড়ি পান করেছিলেন। ফিলিপিন্সে ছুটির দিন ও উৎসবগুলোতে এ পানীয়টির ব্যবহার ব্যাপক।

লাগুনার রিজাল শহরে বৃহস্পতিবার ও রোববার অধিকাংশ মৃত্যুর ঘটনা ঘটে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে।

“এদের সবার লাম্বানোগ খাওয়ার করুণ ইতিহাস ছিল,” এক বার্তায় রয়টার্সকে বলেছে ফিলিপিন্সের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মহামারী-সংক্রান্ত বিভাগ।

“জন্মদিনের উৎসব ও অবসরের পানীয় হিসেবে কিছু লোক এটি কিনেছিল, অন্যদের বড় দিন উপলক্ষে স্থানীয় কর্মকর্তারা পানীয়টি দান করেছিল,” বলেছে তারা।

ফিলিপিন্সে লাম্বানোগের অনিয়ন্ত্রিত উৎপাদন ও বিক্রি প্রচলিত আছে। কখনো কখনো পানীয়টি অবৈধভাবে তৈরি করে তার সঙ্গে মিথানলের মতো বিপজ্জনক অন্যান্য উপাদানও যোগ করা হয়। দেশটির খাদ্য ও অষুধ প্রশাসন এ বিষয়ে সতর্কতাও জারি করেছিল।

গত বছর লাম্বানোগ পানে প্রায় ২১ জনের মৃত্যু হয়েছিল বলে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য