দিনাজপুর সংবাদাতাঃ শনিবার বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির আয়োজনে ‘বঙ্গবন্ধু দর্শন ও মানব উন্নয়ন’ শীর্ষক আঞ্চলিক সেমিনার দিনাজপুর । জেলা শিল্পকলা একাডেমির মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল সাড়ে ১০টার থেকে দিনব্যাপী এ সেমিনারের উদ্বোধন করেন সেমিনারের প্রধান অতিথি ও বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. আবুল বারকাত।

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভাইস চেন্সেলর অধ্যাপক মো. রুহুল আমিন এর সভাপত্বিতে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ও বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সভাপতি ড.আবুল বারকাত। মূখ্য আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. জামালউদ্দিন আহমেদ এফসিএ, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. মোরশেদ হোসেন।

এছাড়াও রংপুর বিভাগে উন্নয়ন সম্ভাবনা ও সমস্যা নিয়ে দিনাজপুর আঞ্চলিক সেমিনার ২০১৯ এর আলোচনা করেন হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. জাকারিয়া, ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের প্রভাষক সজীব কুমার রায়। বৈদেশিক কর্মসংস্থানে রংপুর বিভাগের অনগ্রসরতাঃ উত্তরণের উপায় অনুসন্ধান মূলক আলোচনা করেন সহযোগী অধ্যাপক, অর্থনীতি, উপসচিব (প্রেষণে) মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড দিনাজপুর এর ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. আবুল বারকাত তাঁর নিবন্ধন থেকে ,‘বঙ্গবন্ধু-দর্শন তত্ত্ব ও উচ্ছেদিত সম্ভাবনার বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। এছাড়াও তিনি তাঁর প্রবন্ধের বঙ্গবন্ধু-দর্শন এর সারকথা ও বিনির্মাণ প্রক্রিয়া, বঙ্গবন্ধু-দর্শন-প্রারম্ভিক প্রয়োগ ও বাস্তবায়ন ফল,বঙ্গবন্ধু-দর্শন-পূর্ণ বাস্তবায়নে সমাজ কাঠামোর সম্ভাব্য পরিবর্তনটা কেমন হতো, এসব বিষয়ের উপর গুরুত্বরোপক করে বিষদ আলোচনা করেন।

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু দর্শন ছিল সাধারণ মানুষের জীবনবোধ এবং অর্থনৈতিক সুষম বন্টনের সংমিশ্রণ। জনগণের অর্ন্তনিহিত অপার শক্তি ও ক্ষমতার ওপর ছিল বঙ্গবন্ধুর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস। বাংলাদেশ এখন অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নের বিভিন্ন সূচকে অগ্রগামী। উন্নয়নের এই অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখতে বঙ্গবন্ধুর দর্শনের আলোকে দেশের অর্থনৈতিক কর্মকান্ড পরিচালনার গুরুত্বারোপ করতে হবে।’

সেমিনারে মুক্তিযোদ্ধা, সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা, সাংবাদিক, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা এবং সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য