দিনাজপুর সংবাদাতাঃ সরকার কর্তৃক হাইড্রোলিক হর্ণ বাজানো নিষিদ্ধ হলেও দিনাজপুরের বীরগঞ্জে বিভিন্ন যানবাহনের অসহনীয় হাইড্রোলিক হর্ণে উচ্চ শব্দে জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে।

বীরগঞ্জ উপজেলায় চলাচলরত সকল দূরপাল্লার বাস, ট্রাক, মিনিবাস, ব্যাটারিচালিত রিক্সা,ইজিবাহিক, অটো,বৌ গাড়ি, মোটরসাইকেল এমনকি ভ্যানগাড়িতেও এই হাইড্রোলিক হর্ণ ব্যবহার করা হচ্ছে।

প্রশাসনের পক্ষে থেকে এসব হাইড্রোলিক হর্ণ বন্ধে নির্দেশ দেওয়া হলেও কেউ বিষয়টিতে কর্নপাত না করে হর্ণগুলো ব্যবহার করে চলছে। বীরগঞ্জ পৌরশহরসহ বিভিন্ন স্কুল- কলেজ, হাসপাতাল ও ক্লিনিক এলাকা উচ্চ শব্দে হর্ণ বাজানো নিষেধ থাকলেও সেটা মানছেন না চালকরা।

পৌরশহর, গোলাপগঞ্জ, কবিরাজহাট, বলাকা মোড়, স্লুইসগেট রোড, কল্যাণীহাট এলাকা গুলো ঘুরে দেখা গেছে, এই এলাকায় দিন দিন বিভিন্ন প্রকার যানবাহন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর এ সময় যানবাহনগুলো উচ্চ শব্দে তাদের হর্ণ বাজাতে থাকে এতে করে বাজারে থাকা জনসাধারণ অতিষ্ঠ হয়ে পড়ে। মোবাইলেতো দূরে থাক সাক্ষাতে বলতেও সমস্যায় পড়তে হয় তাদের।

উচ্চ এই শব্দ শিশু ও বৃদ্ধাসহ সকল শ্রেণি পেশার মানুষরাই শারীরিকভাবে নানা সমস্যায় পড়েছেন। চিকিৎসাবিজ্ঞরা মনে করে এই সমস্যা চলতে থাকলে ভবিষ্যৎ প্রজন্মরা বিপদে পড়বে।

শব্দ দুষণের বিষয়ে জানতে চায়লে বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ জাহাঙ্গীর কবির বলেন, উচ্চ শব্দ মানুষকে শ্রবণ প্রতিবন্ধী,মস্তিস্কে আঘাত পেয়ে মানুষিক ভারসাম্যহীন,হার্ড দুর্বল করা এমনকি বধির পর্যন্ত করে দেয়। বীরগঞ্জ উপজেলার সুশীল সমাজের লোকদের অভিমত শুধু নির্দেশ দিল হবে না। এগুলো বন্ধে প্রশাসনের আইগত অভিযান অব্যাহত রাখতে হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য