সিরিয়ার ইদলিবে বিমান হামলায় শিশুসহ অন্তত ২২ জন নিহত ও অন্তত ১২ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ইদলিব প্রদেশের মারাত আল-নুমান জেলায় রাশিয়া ও সরকারি বাহিনীর চালানো হামলার ফলে হতাহতের ঘটনা ঘটে। খবর আল জাজিরা’র

সিরিয়ার প্রতিরক্ষা দপ্তর জানিয়েছে, মঙ্গলবার ডজন খানেক বিদ্রোহী অধ্যুষিত শহর ও গ্রামকে লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালানো হয়। এতে তাল মানিস শহরে নয়জন, বিদামা শহরে ছয়জন ও মাসারানে পাঁচজন নিহত হয়। এছাড়া আল-কানাইসে একজন ও মার শামশাতে একজন নিহত হয়েছেন। বিদামায় যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের মধ্যে হোয়াইট হেলমেটসের (প্রতিরক্ষা দপ্তরের আরেক নাম) স্বেচ্ছাসেবীর স্ত্রী এবং তিন শিশু রয়েছেন।

এছাড়া মাসারান শহরের একটি বাজারে বোমা হামলায় অন্তত ১২ জন আহত হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে হোয়াইট হেলমেট।

হামলার পর ঐসব এলাকার মানুষ প্রাণ ভয়ে বাড়ি ঘর ছেড়ে তুর্কি সীমান্তের শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নিচ্ছেন বলে নিশ্চিত করেছে প্রতিরক্ষা দপ্তর।

চলতি বছরের এপ্রিল থেকে বিদ্রোহীদের সর্বশেষ অধ্যুষিত সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে অঞ্চলে সিরিয়ার সরকারি বাহিনী ও তাদের সহযোগীদের হামলায় অন্তত এক হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। তাছাড়া কয়েক লাখ মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য