তুরস্কের ওপর নিষেধাজ্ঞার বিল অনুমোদন করেছে যুক্তরাষ্ট্রের সিনেট কমিটি। সিরিয়ায় তুরস্কের কুর্দিবিরোধী অভিযান এবং রাশিয়ার এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কেনার শাস্তিস্বরূপ ট্রাম্প প্রশাসন আঙ্কারার বিরুদ্ধে এ কঠোর পদক্ষেপ নিল।

রিপাবলিকান অধ্যুষিত সিনেটের বৈদেশিক সম্পর্ক বিষয়ক কমিটি “প্রমোটিং আমেরিকান ন্যাশনাল সিকিউরিটি এন্ড প্রিভেন্টিং দ্য রিসারজেন্স অব আইএস অ্যাক্ট ২০১৯” পাস করেছে। বিলের পক্ষে পড়েছে ১৮ এবং বিপক্ষে পড়েছে ৪ ভোট। এখন বিলটি পুরো সিনেটে ভোটের জন্য তোলা হবে।

সিনেট কমিটির সিনেটর এবং রিপাবলিকান চেয়ারম্যান জিম রিখ ডেমোক্র্র্যাট সিনেটর বব মেনেনদেজকে সঙ্গে নিয়ে বলেছেন, “এখন সিনেটের একাট্টা হওয়া এবং এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে তুরস্কের আচরণ বদলে দেওয়ার সময়।”

তবে বিলটির বিরোধিতা করেছেন আরেক রিপাবলিকান সিনেটর র‌্যান্ড পল। তিনি বলেন, এ পদক্ষেপের কারণে প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা কমজোর হবে এবং তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়িপ এরদোয়ানের সঙ্গে সিরিয়া অভিযান কিংবা রুশ এস-৪০০ কেনার বিষয়টি নিয়ে কথা বলা আরো কঠিন হয়ে পড়বে।

যদিও অন্যান্য অনেক সিনেটরই এ কথার সঙ্গে একমত পোষণ করেননি। প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ রিপাবলিকান নেতারাসহ অনেক ডেমোক্র্যাট আইনপ্রণেতাও তুরস্কের রুশ এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র কেনা নিয়ে ক্ষুব্ধ। এটিকে তারা নেটো প্রতিরক্ষায় হুমকি বলেই মনে করেন।

এই আইনপ্রণেতারা সিরিয়ার উত্তরাঞ্চল থেকে ট্রাম্পের মারকিন সেনা সরানো নিয়েও ক্ষুব্ধ। সেনা সরানোতেই সেখানে তুরস্কের অভিযানের পথ সুগম হয়েছে বলে মনে করেন তারা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য