লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় এলজিইডি’র সড়ক নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। ওই উপজেলার রেলওয়ে স্টেশন থেকে হাতীবান্ধাহাট পর্যন্ত ৮ শত ৮০ মিটার সড়কের নির্মাণ কাজে নি¤œমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহারের এ অভিযোগ উঠেছে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে।

জানা গেছে, স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তর (এলজিইডি)’র আওতায় ওই সড়ক নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ৬১ লক্ষ টাকা । যা বাস্তবায়নের দায়িত্ব পান লালমনিরহাট জেলা পরিষদের সদস্য ও হাতীবান্ধা উপজেলা মহিলা লীগের সম্পাদক মর্জিনা বেগমের স্বামী নজরুল ইসলামের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। গত বছরের ২৪ সেপ্টেম্বর ওই নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেন।

কিন্তু এলাকাবাসীর অভিযোগ, সড়ক নির্মাণ কাজে ঠিকাদার নি¤œমানের নির্মাণসামগ্রী ব্যবহার করেন। অনিয়মের বিষয়টি উপজেলা প্রকৌশলীকে অবগত করা হলেও কোনো কাজ হয়নি। ওই ঠিকাদার ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে অনিয়মের মাধ্যমে নি¤œমানের নির্মাণসামগ্রী ব্যবহার করে ইতোমধ্যে সড়কের নির্মাণ কাজ শেষ করে দিয়েছে। মানসম্পন কাজ না হওয়ায় সড়কের পাথর উঠে যাচ্ছে।

এ বিষয়ে ঠিকাদার নজরুল ইসলাম বলেন, সড়ক নির্মাণ কাজে নি¤œমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার করা হয়নি। এলাকার কিছু লোকজন চাঁদা দাবী করেছে। চাঁদা না দেয়ায় তারা অনিয়মের মিথ্যা অভিযোগ তুলেছেন।

হাতীবান্ধা উপজেলা প্রকৌশলী নজির হোসেন বলেন, আমি সড়কের নির্মাণ কাজ সড়ে জমিনে পরিদর্শন করেছি এবং আরো পরিদর্শন করবো। কোনো অনিয়ম হলে ওই ঠিকাদারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য