দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরে জুয়া (তাস) খেলার সময় পুলিশ দেখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় নিখোজ যুবকের মরদেহ ৪ ঘন্টা পর উদ্ধার হয়েছে।

শনিবার মধ্যরাতে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা অভিযান চালিয়ে পূর্ণভবা নদীর রাজাপাড়া ঘাট নামক স্থান থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহত যুবকের নাম সিদ্দিকুর রহমান (৩৬)। তিনি সদর উপজেলার গোবড়া পাড়া গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে। তিনি পেশায় একজন গাড়ী চালক।

এলাকাবাসী জানায়, কয়েকজন মিলে রাজাপাড়া এলাকায় নদীর ধারে জুয়া (তাস) খেলছিল। এ সময় সেদিক দিয়ে পুলিশের একটি টহল গাড়ী যাওয়ার সময় ভয় পেয়ে তারা দৌড় দেয়।

এদের মধ্যে ৩ জন পুলিশের হাতে ধরা পড়ার ভয়ে নদীতে ঝাপ দেয়। পরে দুইজন সাতার দিয়ে অন্য তীরে উঠতে পারলেও সিদ্দিকুর রহমান সাতার দিয়ে নদী পার হতে পারেনি, নদীতে সে নিখোজ হয়ে যায়।

খবর পেয়ে দিনাজপুর থেকে ফায়ার সার্ভিসের দল নদীতে গিয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করে। পরে মধ্যরাতে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তার মরদেহ উদ্ধার করে।

দিনাজপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোজাফফর হোসেন জানান, পুলিশ দেখে ভয়ে নদীতে নেমে সাতার দিয়ে অন্য পাড়ে উঠার চেষ্টা করলেও সে উঠতে পারেনি এবং নদীতে নিখোজ হন পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা নদীতে নেমে অভিযান চালিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

উল্লেখ্য, একই স্থানে গত ৪ বছর আগে জুয়া খেলার সময় পুলিশের ভয়ে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে চার জন নিহত হয়েছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য