যুক্তরাষ্ট্রের একটি যুদ্ধ জাহাজ ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীদের কাছে পাঠানো ইরানি ক্ষেপণাস্ত্রের বেশ কিছু যন্ত্রাংশ জব্দ করেছে। বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, এই প্রথমবারের মতো ইয়েমেনগামী এসব যন্ত্রাংশ জব্দ করা হয়েছে। ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম হারেৎজ এখবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনী ও কোস্ট গার্ড একটি ছোট নৌযান থেকে এই যন্ত্রাংশ জব্দ করেছে। গত বুধবার আরব সাগরের উত্তরাঞ্চলে একটি নৌযান থেকে এগুলো জব্দ করা হয়। মার্কিন কর্মকর্তাদের দাবি, এসব যন্ত্রাংশের সঙ্গে ইরান সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা বলছেন, এই ঘটনা প্রমাণ করে ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীদের কাছে অস্ত্র পাচার করছে ইরান।

হারেৎজের খবরে আরও বলা হয়েছে, বিষয়টির স্পর্শকাতরতা বিবেচনায় নাম প্রকাশ করে কথা বলতে রাজি হননি কোনও মার্কিন কর্মকর্তা।

যুক্তরাষ্ট্র বরাবরই অভিযোগ করে আসছে, ইরান হুথি বিদ্রোহীদের অস্ত্র সরবরাহ করছে। যে বিদ্রোহীরা ইয়েমেনের আন্তর্জাতিকভাবে সমর্থিত সরকারকে উচ্ছেদে লড়াই করছে।

কর্মকর্তাদের মতে, ইউএসএস ফরেস্ট শেরম্যান নামের যুদ্ধজাহাজ নিয়মিত সামুদ্রিক অভিযান পরিচালনা করার সময় পতাকাবিহীন একটি ছোট নৌকা দেখতে পায়। এরপর নৌ ও কোস্ট গার্ডের সদস্যরা সেটিকে থামিয়ে তল্লাশী চালালে ক্ষেপণাস্ত্রের যন্ত্রাংশ পাওয়া যায়। কর্মকর্তারা ক্ষেপণাস্ত্রের বা যন্ত্রাংশের নির্দিষ্ট সংখ্যা জানাননি। তারা বলছেন, নৌকাটি বন্দরে নিয়ে যাওয়ার পর ইয়েমেনি কোস্ট গার্ডের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। জব্দ করা যন্ত্রাংশগুলো মার্কিন যুদ্ধ জাহাজে রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ইয়েমেনে অস্ত্র পাচার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ রেজুলেশনের লঙ্ঘন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য