দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর উপজেলায় চার বছরের কন্যা শিশুকে ধর্ষণ ও হত্যা ঘটনার তীব্র নিন্দা ও দ্রুত বিচারের দাবীতে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বরারব স্মারকলিপি প্রদান করেছেন মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখা।

স্মারকলীপি গ্রহণ করেন নবাগত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন এবং জেলা প্রশাসকের পক্ষে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি) মোঃ সানিউল ফেরদৌস।

মঙ্গলবার মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি কানিজ রহমান ও সাধারন সম্পাদক ড. মারুফা বেগম স্বাক্ষরিত জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বরাবর পৃথক পৃথক স্মারকলিপি প্রদান করেছে।

স্মারকলিপিতে বলা হয়, মহিলা পরিষদ, দিনাজপুর শাখা গভীর উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছে যে, দিনাজপুর জেলায় নারীর উপর পাশবিক নির্যাতন বেড়েই চলেছে। এ ধরনের ঘটনাগুলোর সুষ্ঠু বিচার না হওয়া এবং প্রশাসনের উদাসীনতার কারণে এই ভয়াবহ ক্রমবর্ধমানতা। নারীর লজ্জা সম্ভ্রম এভাবে ভুলুন্ঠিত হতে থাকলে সমাজে উন্নয়নের স্রোতধারা বাধাগ্রস্থ হবে।

সম্প্রতি দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার রঘুনাথপুর,মধ্য ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের ভ্যান চালক আরিফুল ইসলামের চার বছরের কন্যাশিশু আবিদা সুলতানা মিম কে পৈশাচিকভাবে ধর্ষণ করে একই গ্রামের আমজাদ হোসেন (১৯) নামের এক যুবক। ধর্ষনেই তার মৃত্যু ঘটলে মিমের মরদেহ ঘরে লুকিয়ে বাড়ীতে তালা ঝুলিয়ে দেয় আমজাদ। মহিলা পরিষদ,দিনাজপুর শাখার নেতৃবৃন্দ পার্বতীপুরের ঘটে যাওয়া ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত ও অপরাধীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানাচ্ছে।

স্মারকলিপি প্রদানকালে দিনাজপুর মহিলা পরিষদের সভাপতি কানিজ রহমান, সহ-সভাপতি মিনতি ঘোষ, নুরুন্নাহার, সহ-সাধারন সম্পাদক মনোয়ারা সানু, সাংগঠনিক সম্পাদক রুবিনা আকতার, লিগ্যাল এইড সম্পাদক জিন্নুরাইন পারু, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক শুক্লা কুন্ডু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য