দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের পার্বতীপুরে সাড়ে তিন বছরের শিশু আবিদা সুলতানা মীমকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনার নায়ক ধর্ষক আমজাদকে হোসেনকে(২১) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারের পর দিনাজপুর পুলিশ সুপার কার্যালয়ে হাজির করা হলে ধর্ষণের বর্ণনা তুলে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেয়। ১৬১ ধারায় পুলিশের কাছে জবানবন্দী দেয়ার পর দিনাজপুর কোর্টের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট রাশেদ আমীন এর আদালতে হাজির করা হয়। সেখানে ১৬৪ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দেয় আসামী। পরে বিকেল সাড়ে ৫টায় তাকে দিনাজপুর জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

পার্বতীপুর মডেল থানার তদন্ত ইন্সপেক্টর সোহেল রানা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তার নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রংপুর তাজহাট মেট্রোপলিটন পুলিশের সহযোগীতায় আজ সোমবার ভোর ৫টায় মডার্ন মোড় এলাকা থেকে ধর্ষক আমজাদকে গ্রেফতার করা হয়। পরে পুলিশ সড়ক পথে আমজাদকে দুপুর ২টায় দিনাজপুর পুলিশ সুপার কার্যালয়ে হাজির করে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার বিকেলে উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের রঘুনাথপুর ডাঙ্গাপাড়ায় শিশু মীম তার সমবয়সী সাথীদের সাথে খেলার জন্য বাড়ির বাইরে গেলে একই গ্রামের পাষন্ড আমজাদ(১৮) চকলেট খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে মীমকে তার ঘরে নিয়ে ধর্ষণ শেষে হত্যা করে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখে। এ ঘটনায় তিন জনের নাম উল্লেখ করে শিশু মীমের বাবা আরিফুল ইসলাম পার্বতীপুর মডেল থানায় গত শনিবার রাতেই (৩০ নভেম্বর) ধর্ষণ ও হত্যা মামলা দায়ের করেন। গত শনিবার রাতে আমজাদের চাচা শাহিনুর আলম(৪০) ও রবিবার দুপুরে দাদি মমিনা বেগম কে (৫৫) গ্রেফতার করে পুলিশ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য