আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধাঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ধর্মপুরে শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদ ও ভূমি অফিস সংলগ্ন শহীদ মিনারটি অযতœ অবহেলায় এখন মুত্রাগার ও ময়লা-আবর্জনা ফেলার ভাগার হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। অথচ ইউনিয়ন পরিষদ কর্তৃপক্ষ সংশ্লিষ্ট কারোই তা নজর নেই।

সরেজমিনে পরিদর্শনে দেখা গেছে, শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্মিত পরিষদ ভবনের সম্মুখে শহীদ মিনারটি দীর্ঘদিন ধরেই বেহাল অবস্থা। শুধু ২১শে ফেব্র“য়ারী শহীদ দিবস, বিজয় দিবস ও স্বাধীনতা দিবস এলেই শুধু ওই একটি দিনই তা পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করেই শহীদ মিনারটিতে পুষ্পমাল্য অর্পন করে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। আর বাদ বাকি দিনগুলোতে তা ওই শহীদ মিনারটির কোন খোঁজ খবরই রাখা হয়নি।

স্থানীয় গণ্যমান্য লোকজন এব্যাপারে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এই শহীদ মিনারটির এ ধরণের বেহাল অবস্থা বিরাজ করা মানেই মহান ভাষা দিবস ও শহীদদের প্রতি চরম অবহেলা প্রদর্শন ছাড়া কিছুই নয়। তারা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং অবিলম্বে শহীদ মিনারটি যথাযোগ্য মর্যাদায় সংরক্ষণের দাবি জানান।

এব্যাপারে শ্রীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলামের সাথে কথা বললে তিনি জানান, শহীদ মিনারটি সংরক্ষণ করার জন্য চারদিকে বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ওই জায়গাটি নিয়ে মামলা থাকায় এতদিন সংরক্ষণ করা সম্ভব হয়নি। তবে ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় দিবসের আগেই শহীদ মিনারটি সংরক্ষণ ও পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখার ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য