DDinajpurআব্দুর রাজ্জাকঃ সরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকুরী দেয়ার নাম করে দিনাজপুরে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক ডাটা এন্ট্রি অপারেটর নূর এ আলম বাবুলু’র প্রতারণার শিকার হয়েছে অসহায় কয়েক পরিবার। জানা গেছে, নুর এ আলম বাবুলু দিনাজপুর রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক উত্তর অঞ্চলের মালদহপট্টিস্থ যোনাল অডিট শাখার একজন কম্পিউটার ডাটা এন্ট্রি অপারেটর।

তিনি জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার সুজালপুর ইউনিয়নের মো. সাহাবদ্দিন’র পুত্র। তিনি নিজ ব্যাংকসহ অন্যান্য সরকারি ব্যাংকগুলোতে চাকুরী দেয়ার নাম করে কয়েকটি অসহায় পরিবারের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়ে প্রতারণা করেছে মর্মে অভিযোগের খবর পাওয়া গেছে।

প্রতারণার শিকার হওয়া বীরগঞ্জ উপজেলার দাড়িয়াপুর এলাকার মো. আব্দুল মতিনের পুত্র মো. আলিমুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, কর্মসংস্থান ব্যাংকে পিয়ন পদে চাকুরী দেয়ার নাম করে গত ০১/০১/২০১৩ইং তারিখে রাজশাহী কৃষি ব্যাংকে কর্মরত নুর এ আলম বাবুলু ৩’শ টাকার ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর দিয়ে ১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা গ্রহণ করে।

কিন্ত সময় পেরিয়ে গেলেও চাকুরী দিতে না পারায় উল্লেখিত টাকা ফেরত চাইলে নুর এ আলম আর কোনরকম ভুমিকা রাখছেন না বলে আলিমুল প্রতিবেদককে জানান। এতগুলো টাকা ফেরত না পেয়ে প্রতারণার শিকার হয়ে আলিমুল এখন অসহায়ত্ব জীবন যাপন করছেন। একইভাবে আরেকজন ভুক্তভোগী দিনাজপুর সদরের খলিলুল্লাহ আজাদ।

তিনিও চাকুরী পাওয়ার আশায় উক্ত ব্যাংক’র ডাটা এন্ট্রি অপারেটর নুর এ আলম বাবুলুকে ৬৫ হাজার টাকা নগদ গ্রহন করেন। প্রেক্ষিতে নুর এ আলম ১৫/০২/১৪ইং তারিখে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক দিনাজপুর শাখার উক্ত টাকার একটি চেক খলিলুল্লাহ আজাদকে প্রদান করেন। যার চেক নং-০৩৪২১০, হিসাব নং-৯৯৫৬।

প্রতারণার শিকার খলিলুল্লাহ আজাদ বলেন, চাকুরী দিতে না পারায় টাকার উত্তোলনের জন্য উক্ত চেক ব্যাংকে জমা দিলে ডিসওনার হয়। তিনি এ ব্যাপারে নুর এ আলমের বিরুদ্ধে মামলা করবেন বলে জানান। এছাড়াও খানসামাস্থ রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের মাস্টার রোলে টি-বয় মতিয়ার রহমান নুর আলমের প্রতারণার শিকার হয়েছে বলে জানা গেছে।

মতিয়ার এ ব্যাপারে খানসামা শাখা ম্যানেজারের নিকট একটি অভিযোগও করেছেন বলে জানান। প্রতারণার শিকার সকল ভুক্তভোগী প্রতারক নুর এ আলম বাবুলু’র বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনসহ টাকা ফেরতে সহযোগিতার করতে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য