যৌনজীবনটাই যদি একঘেয়ে, বোরিং হয়ে যায়, তা হলে জীবনের আর বাকি থাকল কী? অথচ একটানা বহু বছর একসঙ্গে থাকতে থাকতে বহু সম্পর্কেরই এই পরিণতি হয়, যৌন আকর্ষণের ছিটেফোঁটাও আর বাকি থাকে না! তবে তার জন্য হা হুতাশ না করে বরং ভেবে দেখুন ঠিক কী কী করলে ফিরিয়ে আনতে পারেন হারিয়ে যাওয়া সেক্স আর রোমান্স! আপনার সুবিধের জন্য আমরা দিয়ে দিলাম কিছু সহজ পরামর্শ।

নিজেকে চিনুন
দীর্ঘদিন একসঙ্গে থাকতে থাকতে সেক্স লাইফে ভাটা পড়া খুব স্বাভাবিক! এ সব ক্ষেত্রে স্বামী স্ত্রী পরস্পরের ব্যাপারে এতটাই নির্লিপ্ত হয়ে যান যে জীবন থেকে চমকটাই উধাও হয়ে যায় আর তার প্রভাব পড়ে বিছানায়। এমন হলে সবার আগে নিজের মনটা ভালোভাবে চেনা দরকার। নিজের ইচ্ছে অনিচ্ছে ভালো লাগা সুখবোধগুলো সম্পর্কে ঠিকমতো ওয়াকিবহাল হলে তবেই বুঝতে পারবেন অর্গাজ়মে পৌঁছোতে আপনার ঠিক কী দরকার। কাজেই খোঁজা থামাবেন না, এক্সপেরিমেন্ট করাও না।

গুরুত্ব দিন ফোরপ্লে-তে
সেক্সের মূল আনন্দটা কয়েক সেকেন্ডের জন্য, কিন্তু সেই জায়গায় পৌঁছোনোটাই হল আসল মজা। তাই ফোর প্লে কখনও নমো নমো করে সেরে দেবেন না! পুরুষদের তুলনায় মেয়েরা উত্তেজিত হতে বেশি সময় নেন, সেই সময়টা দিতে হবে। রোল প্লেয়িং, স্ট্রিপ টিজ়ের মতো কাজকর্ম মুড সেট করে দিতে যথেষ্ট!

সেক্সটিং ট্রাই করেছেন?
সব সময় সাধারণ কথা বা কাজের কথা লিখে টেক্সট করেন স্বামীকে? মেসেজের ভাষায় একটু দুষ্টুমি মেশালে কেমন হয়? এখানেই সেক্স টেক্সটিং অর্থাৎ সেক্সটিংয়ের গুরুত্ব। রাত্তিরে বিছানা উষ্ণ করে তোলার প্ল্যানটা টেক্সট করেই সেট করে নিন, আর তারপর দেখুন কী হয়!

সেক্স টয়ের সাহায্য নিতে পারেন
একটু বেশি এক্সপেরিমেন্ট করার প্ল্যান থাকলে বিছানায় নিয়ে আসুন রকমারি সেক্স টয়। ভাইব্রেটর, হ্যান্ডকাফ, ফেদারের মতো নানা সেক্স টয় অনলাইন শপগুলোয় পাওয়া যায়। এমনকী সাধারণ রুমাল দিয়ে পার্টনারের চোখ বেঁধে দিয়েও দারুণ এক্সাইটিং পরিবেশ তৈরি করে ফেলা যায়! একবার ট্রাই করে দেখুনই না!
তথ্যঃ ফেমিনা

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য