জাতিসংঘে নিযুক্ত সিরিয়ার রাষ্ট্রদূত বাশার-আল জাফারি অভিযোগ করেছেন, তার দেশের তেলকূপগুলোতে মার্কিন সেনা মোতায়েন করা রয়েছে; তারা সেখানে দখলদারিত্ব কায়েম করেছে এবং সিরিয়ার সম্পদ লুটপাট করছে। আমেরিকার এই চৌর্যবৃত্তির মুখে জাতিসংঘ নীরব রয়েছে বলেও তিনি বিশ্ব সংস্থার সমালোচনা করেন।

মার্কিন সেনারা সিরিয়ার তেলকূপ দখল করেছে, সম্পদ লুট করছে -Dinajpur, Dinajpurnews, Dinajpur news, দিনাজপুর, দিনাজপুরনিউজ, দিনাজপুর নিউজ বাংলা, বাংলানিউজ bangle, banglanews, Bangladesh, বাংলাদেশ I+আজ (শনিবার) নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের বৈঠকে সিরিয়ার রাষ্ট্রদূত এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, জাতিসংঘের নীরবতার কারণে আমেরিকা এই লুটপাট এবং চৌর্যবৃত্তি চালাতে সুযোগ পাচ্ছে।

বাশার জাফারি বলেন, মধ্যপ্রাচ্যের মানচিত্র পরিবর্তন করার জন্য সিরিয়াকে টার্গেট করেছে আমেরিকা এবং উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর প্রতি বিদেশি শক্তির সমর্থন বন্ধ হলেই কেবল যুদ্ধের অবসান হবে।

নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে সিরিয়ার রাষ্ট্রদূত তুরস্কের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন, আঙ্কারা সিরিয়ার ভেতরে দখলদারিত্ব কায়েম করেছে, সিরিয়াবাসীকে হত্যা করছে এবং হাজার হাজার মানুষকে উদ্বাস্তু করেছে।

এদিকে, সিরিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থা সানা জানিয়েছে, ইরাক থেকে আমেরিকার একটি সেনাবহর আবার সিরিয়ার হাসাকা প্রদেশ প্রবেশ করেছে।

পার্সটুডে

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য