শুধু চুলেই নয় শীতকালের শুষ্ক আবহাওয়াতে ভ্রুসহ যেকোনো স্থানেই দেখা দিতে পারে সংক্রমণ।

ভ্রুতে খুশকি দেখা দিলে সাদা আবরণ হয়। যা ঘষে উঠাতে গেলে সমস্যা আরও বাড়ে। নিরাময়ের জন্য রয়েছে প্রাকৃতিক পন্থা।

রূপচর্চা-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে ভ্রুয়ের খুশকি দূর করার কয়েকটি উপায় সম্পর্কে জানানো হল।

কাঠবাদাম তেল: কাঠবাদাম তেল গরম করে কয়েক ফোঁটা হাতে নিয়ে ভ্রু’তে মালিশ করুন, খুশকি দূর হবে। তাছাড়া কাঠবাদামের তেল মালিশ করলে চুল পড়াও কমবে। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে তেল মালিশ করলে ভালো ফলাফল পাওয়া যায়। সকালে উঠে ভালো মতো মুখ ধুয়ে নিতে হবে।

অ্যালো ভেরার জেল: ত্বকের যে কোনো সমস্যায় অ্যালো ভেরা খুব ভালো সমাধান। কিছু খাঁটি অ্যালো ভেরা জেল ভ্রুতে মালিশ করুন। পরে কুসুম গরম পানি দিয়ে তা ধুয়ে ফেলুন।

লবণ: ভ্রুতের খুশকি দূর করার প্রাকৃতিক উপায় হিসেবে লবণ ব্যবহার করতে পারেন। এটা ত্বক এক্সফলিয়েট করে এবং দাগ কমায়। এক চিমটি লবণ নিয়ে তা ভ্রুতে আলতোভাবে মালিশ করুন।

নিমের তেল: নিমে আছে ব্যাক্টেরিয়া ও প্রদাহ রোধী উপাদান, যা ত্বকের যে কোনো সমস্যা দূর করে। ভ্রুতে নিম তেল ব্যবহার করেও খুশকি দূর করা যায়।

মেথি বীজ: যাদের ভ্রুতে খুশকি হয় তাদের ভ্রুর লোম পড়ার সমস্যাও দেখা দেয়। মেথি বীজ অ্যামিনো অ্যাসিড সমৃদ্ধ যা খুব ভালো এক্সফলিয়েটর হিসেবে কাজ করে। সারা রাত মেথি বীজ পানিতে ভিজিয়ে রেখে পরদিন সকালে গুঁড়া করে ভ্রুতে ব্যবহার করতে পারেন। ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে কুসুম গরম পানি দিয়ে তা ধুয়ে ফেলতে হবে।

আরও বিষয় হল

– চাইলে খুশকি নিরোধী শ্যাম্পু দিয়ে ভ্রু ধুতে পারেন।

– মাঝে মাঝে অন্ত্রের ভারসাম্যহীনতার কারণে ত্বকে সংক্রমণ দেখা দেয়। তাই খাবার তালিকায় স্বাস্থ্যকর খাবার যোগ করার চেষ্টা করতে হবে।

– ত্বক আর্দ্র রাখতে ভালো ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে।

সুত্রঃবিডিনিউজ২৪.কম

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য