দিনাজপুর সংবাদাতাঃ মঙ্গলবার দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন বাজারে ভোক্তা অধিকার অনুসারে দ্রব্যমূল্য তদারিক করার সময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ রমিজ আলম বিভিন্ন বাজারে লবণ নিয়ে চলা গুজবে কান না দেওয়ার পরামর্শ প্রদান করেন।

বীরগঞ্জ পৌরশহরের জননী ষ্টোর ও সেতাবগঞ্জ রোডস্থ সেল্টু স্টোর পরিদর্শণ করেন এবং ভোক্তাদের বলেন, লবন দেশে সঙ্কট হয়নি, অসাধু ব্যবসায়ীরা এই ধরনের গুজবে আপনাদের কাছ থেকে একটি মোটা অংকের টাকা নিয়ে নিচ্ছে। পরে বীরগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজার মনিটরিং করেন।

অন্যদিকে খোজ নিয়ে জানা গেছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী পরিবহণ ধর্মঘটকে কাজে লাগিয়ে লবনের দাম বাড়ার বিষয়ে গুজব ছড়িয়ে দিয়ে ৩০ টাকার পদ্মা লবন ৫০ টাকায় বিক্রি করতে দেখা গেছে। উপজেলার কিছু পল্লী বাজারে লবনের সঙ্কট দেখিয়ে ২০ টাকা কেজি লবন ৪০ থেকে ৬০ টাকা পযন্ত বিক্রি করছে।

বীরগঞ্জ পৌরশহরের বাজার তদারকির সময় লবণের দাম বৃদ্ধি করে বিক্রি করায় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ রমিজ আলম জননী ষ্টোর, নুরুল ট্রেডার্স, মান্নান ট্রেডার্স কে দশ হাজার টাকা করে মোট ত্রিশ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা কালে এস.আই তহিদুল ইসলাম, উপজেলা ভূমি অফিসের ক্রেডিট চেকিং কাম-সায়রাত সহকারী আব্দুল হাদী আল মেহেদি, নাজির-কাম-ক্যাশিয়ার মোঃ রুবেল ইসলাম, বীরগঞ্জ থানা পুলিশের কলস্টেবল খুরশেদ, মনিরুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য